খাগড়াছড়িখাগড়াছড়ি সংবাদপাহাড়ের সংবাদশিরোনামস্লাইড নিউজ

খাগড়াছড়িতে কাল থেকে শুরু হচ্ছে ত্রিপুরা সংস্কৃতি মেলা

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি: বাংলা নববর্ষ এবং পাহাড়ের ১১টি জাতিসত্ত্বার প্রাণের উৎসব ‘বিজু-সাংগ্রাই-বেসু (বৈসাবি) উপলক্ষে প্রথমবারের মতো খাগড়াছড়ি শহরে কাল (সোমবার) সন্ধ্যা থেকে শুরু হবে সপ্তাহ ব্যাপি ত্রিপুরা সংস্কৃতি মেলা। শহরের খাগড়াপুর মাঠে বর্ণাঢ্য আনুষ্ঠানিকতায় সন্ধ্যা ৫টায় মেলার উদ্বোধন করবেন, খাগড়াছড়ি সেনা রিজিয়নের অধিনায়ক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল হামিদুল হক পিএসসি। এসময় বিশেষ অতিথি থাকবেন জেলা প্রশাসক মো: শহিদুল ইসলাম, পুলিশ সুপার মো: আহমার উজ্জামান ছাড়াও সামরিক-বেসামরিক প্রশাসনের পদস্থ ব্যক্তিবর্গ, জনপ্রতিনিধিসহ বিভিন্ন শ্রেণী-পেশা’র প্রতিনিধিত্বশীল ব্যক্তিত্বরা। মেলায় ত্রিপুরাদের ঐতিহ্যবাহী সংস্কৃতি বিষয়ক উপকরণ, প্রকাশনা, অলংকার, ব্যবহার্য্য সামগ্রী, বুননকর্ম, বাঁশ-বেতসহ নানা ধরনের হস্তশিল্প, খাবার-পিঠা-পায়েসের প্রদর্শনী স্টল থাকবে।

বাংলাদেশ ত্রিপুরা কল্যাণ সংসদ-এর উদ্যোগে আয়োজিত সংস্কৃতি মেলার অংশ হিসেবে ১২ এপ্রিল সকাল ৮টায় খাগড়াছড়ি সদর উপজেলা মাঠ থেকে ত্রিপুরাদের ঐতিহ্যমন্ডিত সাজ-সজ¦া ও ‘গরয়া’ নৃত্যের মাধ্যমে একটি শোভাযাত্রা শহর প্রদক্ষিণ করে মেলাঙ্গনে শেষ হবে। মেলা’র অন্যতম সংগঠক নারীনেত্রী শাপলা ত্রিপুরা জানান, ত্রিপুরা কল্যাণ সংসদ এবং ত্রিপুরা স্টুডেন্টস ফোরাম-এর প্রতিটি শাখা থেকে প্রতিযোগিতামূলকভাবে স্টল প্রস্তুতি শেষ পর্যায়ে। নারী ও শিশুদের জন্য স্বস্তিদায়ক রিবেশকে প্রাধান্য দিয়েই মেলার ইনটেরিয়র ও প্রবেশ-বাহির পথ তৈরি করা হয়েছে।

খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদ সদস্য ও ত্রিপুরা সংস্কৃতি মেলার অন্যতম সংগঠক পার্থ ত্রিপুরা জুয়েল জানান, জাতি-ধর্ম-দল-মত নির্বিশেষে সবার জন্য উন্মুক্ত এই মেলায় প্রতিদিনই সৃজনশীলতার ভিন্নতায় পরিপূর্ন থাকবে। বাংলাদেশ ত্রিপুরা কল্যাণ সংসদ-এর কেন্দ্রীয় সভাপতি নলেন্দ্র লাল ত্রিপুরা জানান, ১৯ এপ্রিল সন্ধ্যায় মেলা মাঠে আয়োজিত সমাপনী অনুষ্ঠানে ভারতের খ্যাতনামা ত্রিপুরা সাংস্কৃতিক দলের মনোজ্ঞ পরিবেশনা নিশ্চিত করা হয়েছে। এদিকে প্রশাসনের পক্ষ থেকেও প্রথমবারের মতো আয়োজিত ত্রিপুরা সংস্কৃতি মেলার সার্বিক নিরাপত্তা ও শৃঙ্খলা বিধানে আগাম প্রস্তুতির কথা জানিয়েছেন সদর থানার ওসি সাহাদাত হোসেন টিটো।