খাগড়াছড়িখাগড়াছড়ি সংবাদপাহাড়ের সংবাদশিরোনামস্লাইড নিউজ

খাগড়াছড়িতে ধর্ষণের ঘটনায় জড়িত সন্দেহে ৭জন আটক চট্টগ্রামে

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি: খাগড়াছড়ি সদর উপজেলার গোলাবাড়ি ইউনিয়ন পরিষদ সংলগ্ন বলপেয়ে আদম এলাকা থেকে এক বুদ্ধি প্রতিবন্ধী নারী (২৬)কে ধর্ষণের মামলায় ৭জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন খাগড়াছড়ি সদর থানার ওসি মোহাম্মদ আব্দুর রশীদ। তিনি জানান, ঘটনার পর থেকেই আসামীদের গ্রেপ্তারে অভিযান চালানো হয়েছে। শনিবার ভোর রাতে ৭ আসামীকে চট্টগ্রামের পাহাড়তলী ও আকবর শাহ্ থানা এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করে খাগড়াছড়ি সদর থানা পুলিশ। বাকী ২জান আসামীকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

গত বুধবার রাতে জেলা সদরের গোলাবাড়ি ইউনিয়ন পরিষদ সংলগ্ন একটি বাড়িতে ডাকাতির উদ্দেশ্যে দরজা ভেঙে ঘরের ভেতরে ঢুকে বাড়ির মালিক, তার স্ত্রী ও বুদ্ধি প্রতিবন্ধী মেয়ের হাত-মুখ বেঁধে ফেলে ডাকাত দল। পরে বুদ্ধি প্রতিবন্ধী নারীকে গণধর্ষণ করে তারা। এসময় তিন ভরি স্বর্ণ, নগদ টাকা ও মোবাইল ফোন লুট করে ঘরের বাইরে থেকে বাড়ির দরজা বন্ধ করে পালিয়ে যায় ডাকাতরা। এ ঘটনায় ধর্ষিতার পরিবারের পক্ষ থেকে ৯জনকে আসামী করে খাগড়াছড়ি সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। পুলিশ ভিকটিমকে উদ্ধার করে খাগড়াছড়ি সদর হাসপাতালে ভর্তি করেছে।

এদিকে দুর্ধর্ষ ডাকাতিকালে গণধর্ষণের শিকার নারীর মেডিকেল পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। তিনি এখনো খাগড়াছড়ি জেলা সদর হাসপাতালে রয়েছেন। শনিবার বিকাল নাগাদ তাকে আদালতে এনে ২২ ধারায় জবানবন্ধী নেয়ার কথা রয়েছে।

এদিকে এখন পর্যন্ত ঘটনায় সন্দেহভাজন ৭জনকে খাগড়াছড়ি ও চট্টগ্রাম থেকে আটক করেছে খাগড়াছড়ি পুলিশ। বাকি আসামীদের ধরতে অভিযান চলছে জানিয়েছে পুলিশ। তবে, বাকি আসামীদের ধরার স্বার্থে এখনই আটককৃত আসামীদের নাম পরিচয় প্রকাশ করছেনা পুলিশ। আগামী কালকের মধ্যে আসামীদের হাজির করে সংবাদ সম্মেলন করার কথা রয়েছে।

উল্লেখ্য, গত বুধবার দিবাগত গভীর রাতে জেলা শহরের বলপাইয়া আদাম এলাকায় ডাকাতিকালে গণধর্ষনের ঘটনা ঘটে। এ ব্যাপারে থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইন ও ডাকাতির দুটি মামলা করেছেন গৃহকর্তী পুষ্প রানী চাকমা। গৃহকর্তী অসুস্থ্য বিন্দু লাল চাকমা বাড়িতে শয্যাশায়ী রয়েছেন।

পুলিশ সুপার মো: আব্দুল আজিজ জানিয়েছেন, সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে দায়ীদের গ্রেফতার করার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। মামলার সন্তোষজনক অগ্রগতি হয়েছে। যারাই এমনটা করে থাকুক, কাউকেই ছাড় দেয়া হবেনা।