জাতীয় সংবাদঢাকাশিরোনামস্লাইড নিউজ

গাজীপুরে ঈদের দিনে সন্ত্রাসী হামলা, আহত ১

ঢাকা অফিস ও গাজীপুর প্রতিনিধি: গাজীপুর মেট্রোপলিটনের ২৩ নং ওয়ার্ডে উত্তর সালনা এলাকার মোঃ জাকির হোসেনকে হত্যার উদ্যেশে একই এলাকার ১) মোঃ কামরুল ইসলাম (২৭), ২) মোঃ নাহিদুল ইসলাম (২৩), উভয় পিতা মোঃ আবুল হোসেন ৩) মোঃ নুরুল ইসলাম (৫০) পিতামৃত সিদ্দিকুর রহমান এর নির্দেশে আরও ৫/৬ জন অজ্ঞাতনামা লোক সহ তাহাকে কুপিয়ে মারাত্মক জখম করে।

ঘটনার সূত্রপাতঃ উপরোক্ত বিবাদীগন প্রায় ১ মাস ধরে জাকির হোসেনের নিকট তাহার বাড়ীর সামনের রাস্তার কাজ করিতে হইলে ১,০০,০০০ (একলক্ষ) টাকা চাঁদা দিতে হবে বলে দাবি করে আসিতেছিল। অন্যথায় উক্ত রাস্তার কাজ করিতে পারিবে না বলে হুমকি দিতেছিল। মোঃ জাকির হোসেন চাঁদা দেওয়ার কথা অস্বীকার করায় ইং ৫/৬/১৯ তারিখ রোজ বুধবার পবিত্র ঈদুল ফিতরের দিন বিকাল আনুমানিক ৫.৩০ ঘটিকার সময় তাহার নিজ বাড়ী হতে বের হয়ে মোসাঃ সেলিমা বেগমের বাড়ীর পূর্ব পার্শ্বে আসিলে উক্ত বিবাদীগন পথ অবরোদ্ধ করিয়া ১,০০,০০০ (একলক্ষ) টাকা চাঁদা কেন দিস নাই বলিয়া আরও ৫/৬ জন অজ্ঞাতনামা লোক নিয়ে এলোপাতারীভাবে মারধর করিতে শুরু করে। মোঃ জাকির হোসেনের মাথায় ধারালো অস্ত্র দিয়া আঘাত করায় সে জীবন বাচাঁতে ডাক চিৎকার করিতে শুরু করিলে তাহার স্ত্রীসহ এলাকার লোকজন আসিতেছে দেখিয়া বিবাদীগন বেপরোয়া হয়ে জাকির হোসেনকে বেদম মারধর করিতে শুরু করে। জাকির হোসেনের স্ত্রী ও লোকজন দ্রুত উপস্থিত হওয়ায় বিবাদীগন এই বলে হুমকি দেয় যে পরবর্তীতে তোকে জানে মেরে লাশ গোম করে ফেলব বলিয়া উক্ত স্থান হতে দ্রুত চলে যান। তাহার স্ত্রী ও এলাকার লোকজন আসিয়া জাকির হোসেনকে দ্রুত গাজীপুর সহিদ তাজউদ্দিন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন। উক্ত হাসপাতালের কর্তব্যরত ডাক্তারের সাথে কথা বলে জানা যায় জাকির হোসেনের মাথায় আঘাতের কারনে তার অবস্থা খুবই আশঙ্কা জনক।

উক্ত বিবাদীগনের নামে প্রায় ১০/১১ টি সাধারন ডায়েরি সহ বিভিন্ন অভিযোগ গাজীপুর মেট্রোপলিটন সদর থানায় রয়েছে বলে জানা যায়। সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজি, খুনখারাপি সহ বিভিন্ন অপকর্মের সহিদ তাহারা লিপ্ত রয়েছেন বলে জানা যায়।