খাগড়াছড়িখাগড়াছড়ি সংবাদগুইমারাপাহাড়ের সংবাদশিরোনামস্লাইড নিউজ

গুইমারায় আনোয়ার হত্যা মামলার পলাতক আসামী আটক

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি: খাগড়াছড়ির গুইমারা উপজেলার বহুল আলোচিত ভাড়ায় চালিত মোটর সাইকেল চালক আনোয়ার হত্যা মামলার পলাতক আসামী এনামূলহক প্রকাশ সাইফুল ইসলাম জসিম (৩৫)কে আটক করেছে চট্টগ্রম মহানগন গোয়েন্দা পুলিশ। ১৮ অক্টোবর বৃহস্পতিবার রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গোয়েন্দা পুলিশের উপ-পরিদর্শক হুমায়ন কবির মিধা’র নেতৃত্বে অভিযান চালিয়ে তাকে চট্টগ্রামের মিরশ্বরাই উপজেলার ছোট কমলদাহ এলাকা থেকে আটক করা হয়। আটককৃত জসিম উদ্দিন চট্টগ্রাম জেলার সীতাকুন্ড উপজেলার সৈয়দপুর গ্রামের মৃত মোঃ আমির হোসেনের ছেলে। সে বিভিন্ন স্থানে চদ্ম নাম সাইফুল ইসলাম, জসিম, আবু বক্করসহ নানা নামে নিজেকে পরিচয় দিতো বলে জানান গোয়েন্দ সদস্যরা।

প্রসঙ্গত, ঘাতক জসিম ছিলেন, নির্মম ভাবে খুন হওয়া আনোয়ারের ফুফাতো ভগ্নিপ্রতি। গত ২৭ অক্টোবর ২০১৪ সালে কম দামে মোটর সাইকেল কিনে দেয়ার প্রলোবন দেখিয়ে নগদ এক লক্ষ টাকাসহ আনোয়ারকে মিরশ্বরাই উপজেলায় নিয়ে যায় জসিম। এরপর থেকে দুজনেরই মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যায়। দুইদিন পরে ২৯ অক্টোবর বিকাল ৩টায় উপজেলার ২নং বারইয়াডালা ইউনিয়নের বহরপুর গ্রামের নাজিমউদ্দিনের পুকুরে আনোয়ারের লাশ ভেসে উঠলে ফেসবুকে ছবির মাধ্যমে নিহতের পরিবার নিশ্চত হয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে আনোয়ারের লাশ এলাকায় নিয়ে আসে। নিহত আনোয়ার পেশায় একজন মোটর সাইকেল চালক ছিলেন।

এদিকে ঘটনায় পর নিহতের বড় ভাই বাদী হয়ে খাগড়াছড়ি আদালতে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। গুইমারা থানার মামলা নং-০৩/১২-১৪। ধারা ৩০২/৩৪। মামলাটি পরে সিআইডি পুলিশের নিকট হস্তান্তর করা হয়েছিলো।তদন্তকারী কর্মকর্তা চট্টগ্রাম গোয়েন্দা পুলিশের উপ-পরিদর্শক হুমায়ন কবির মিধা জসিম’কে আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, গোযেন্দা সংস্থা কর্তৃক র্দীঘ চার বছর বিভিন্ন মাধ্যমে খোঁজার পর জসিম মিরশ্বরাই ছোট কমলদাহ এলাকায় বাসা ভাড়া নিয়ে বসবাস করছে এমন তথ্যের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে কমলদাহ বাজারের একটি লন্ড্রী দোকানের সামনে থেকে তাকে আটক করতে সক্ষম হই। আটকের পর তাকে খাগড়াছড়ি জেল হাজতে প্রেরন করে ১০ দিনের রিমান্ডের আবেদন করা হয়েছে। নিহত আনোয়ারের মা তার ছেলের হত্যকারীর ফাঁসি দাবী করেছেন।