চট্টগ্রাম সংবাদরাঙ্গুনিয়াশিরোনামস্লাইড নিউজ

চন্দ্রঘোনায় অগ্নিকান্ডে দোকান পুড়ে ১০ লক্ষ টাকার ক্ষতি

স্টাফ রিপোর্টারঃ রাঙ্গুনিয়া উপজেলার চন্দ্রঘোনা এলাকায় গত ৬ জুন গভীর রাতে নাশকতার আগুনে একটি ষ্টেশনারি দোকান সম্পূর্ণ পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। আগুন দ্রুত ছড়িয়ে পড়লে দোকানের ভিতরে থাকা সওদাগর মো. আবুল কাসেম গুরুতর আহত হয়। এলাকাবাসী ও রাঙ্গুনিয়া ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা আগুন নিয়ন্ত্রনের চেষ্ঠা চালালেও মুহুর্তে আগুনে সম্পূর্ণ দোকান ভস্মিভূত হয়। এতে প্রায় ১০ লক্ষ টাকার সম্পদের ক্ষতি হয়েছে বলে ফায়ার সার্ভিস সূত্র জানিয়েছে। জানা যায়, উপজেলার চন্দ্রঘোনা কদমতলী ইউনিয়নের সিকদার পাড়ার প্রবাসী ফেরত মো. আবুল কাসেম বেসরকারি এনজিও থেকে ঋন নিয়ে বাড়ির পাশে একটি ষ্টেশনারি দোকান খুলেন। ব্যবসা প্রতিষ্ঠান দিয়ে কোনমতে সংসার চলছিল। ঈদের দিন গভীর রাতে কে বা কারা দোকানে গান পাউডার দিয়ে আগুন লাগিয়ে দেয়। লেলিহান আগুন দ্রুত ছড়িয়ে পড়লে দোকানের মালামাল সম্পূর্ণ পুড়ে যায়। এসময় দোকানের ভিতর আবুল কাসেম ঘুমাচ্ছিলেন। এলাকাবাসীর সহযোগীতায় আবুল কাসেমকে গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় উদ্ধার করে রাঙ্গুনিয়া হেলথ কেয়ার হাসপাতালে ভর্তি করলে ডাক্তাররা তার অবস্থা আশংকাজনক বলে জানিয়েছেন। দোকান মালিকের ভাতিজা মোহাম্মদ জুয়েল বলেন, দুস্কৃতিকারীরা গান পাউডার দিয়ে পরিকল্পিত ভাবে দোকান জ্বালিয়ে দিয়েছে। এটা নাশকতা। ন্যাক্কার জনক ঘটনায় জড়িতদের দ্রুত তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা নেয়ার দাবী জানিয়েছেন। ক্ষতিগ্রস্থরা জানান, জায়গা বিরোধের জের ধরে এ নাশকতার সূত্রপাত ঘটতে পারে। ইতোপূর্বে দূর্ঘটনা কবলিত এলাকায় একটি খড়ের গাঁথা দুস্কৃতিকারীরা আগুনে জ্বালিয়ে দেয় বলে পুলিশ সূত্রে জানা গেছে। এ ঘটনায় রাঙ্গুনিয়া মডেল থানায় লিটন, আবছার, নুরুল, আলম, পেয়ারু, শাহ আলম, নুর বানু সহ নাম উল্ল্যেখ অজ্ঞাত আরো ৪ জনকে আসামী করে মামলা হয়েছে। রাঙ্গুনিয়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জানান, বিষয়টা তদন্ত করে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।