পাহাড়ের সংবাদবান্দরবান সংবাদরুমাশিরোনামস্লাইড নিউজ

বান্দরবানে অপহৃত ৬ ব্যক্তিকে উদ্ধার করলো সেনাবাহিনী

স্টাফ রিপোর্টার: গত ১৯ আগস্ট ২০১৯ তারিখে, চাঁদা না দেয়ায় বান্দরবান জেলার রুমা উপজেলার মিনজিরি পাড়া থেকে নয়ন, মিজান ও বাসু নামক ৩ জন জীপ (স্থানীয় নাম চাঁদের গাড়ি) চালক এবং আবদুল্লাহ, সুমন মারমা ও মিল্টন কর্মকার বুইশ্যা নামক ঐ জীপের ৩ জন হেল্পারকে অপহরণ করে নিয়ে যায় সন্ত্রাসীরা। এ ঘটনা জানার পরপরই সেনাবাহিনীর রুমা সেনা জোন অপহৃতদের উদ্ধারের জন্য বিশেষ অভিযান শুরু করে।

সেনাবাহিনীর সাঁড়াশি অভিযানের মুখে টিকতে না পেরে ঐ রাতেই (১৯ আগস্ট) সন্ত্রাসীরা অপহরণের ঘটনাস্থল থেকে কিছু দূরে আবদুল্লাহ, সুমন মারমা ও মিল্টন কর্মকার বুইশ্যা নামক ৩ জন হেল্পারকে মুক্তি দিতে বাধ্য হয়। এ সময় সেনাবাহিনী ওই স্থান থেকে তিনটি জীপ গাড়িও উদ্ধার করে। অবশিষ্ট ৩ জন চালককে উদ্ধারের জন্য সেনাবাহিনীর রুমা জোন জোর প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখে।

এরই ধারাবাহিকতায় সেনাবাহিনী গত ২০ আগস্ট তারিখ রাত আনুমানিক ৮ টার সময় সন্ত্রাসীদের আস্তানায় হানা দিলে তারা অপহৃত দুই চালক আবদুল্লাহ ও সুমন মারমাকে ফেলে পালিয়ে যায়। এ সময় অপহৃত তৃতীয় চালক বাসুকে নিয়ে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়। উদ্ধারকৃত দুই চালক আবদুল্লাহ ও সুমন মারমার নিকট হতে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে সেনাবাহিনী ব্যাপক তল্লাশি অভিযান চালিয়ে অপহৃত তৃতীয় ও সর্বশেষ চালক বাসুকে অদ্য বিকাল আনুমানিক ৩টার সময় রুমা উপজেলার কেওতাইপাড়া এলাকা থেকে উদ্ধার করতে সক্ষম হয়েছে।

অপহরণকারী সন্ত্রাসীদের আটকের প্রচেষ্টায় সেনাবাহিনীর রুমা জোনের অভিযান অব্যাহত রয়েছে। পার্বত্য চট্টগ্রামে আইন-শৃংখলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে যে কোন ধরনের সন্ত্রাসী কার্যকলাপের বিরুদ্ধে সেনাবাহিনীর এরুপ অভিযান অব্যাহত থাকবে।