খাগড়াছড়িখাগড়াছড়ি সংবাদপাহাড়ের সংবাদশিরোনামস্লাইড নিউজ

মুজিববর্ষের উপহার পেল খাগড়াছড়ি ২৬৮ গৃহহীন পরিবার

স্টাফ রিপোর্টার: মুজিববর্ষে প্রথম ধাপে খাগড়াছড়ি জেলায় ২৬৮টি ভূমিহীন পরিবার উপহার পেলো পাকা ঘর। মুজিববর্ষ উপলক্ষে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঘোষণা “বাংলাদেশে একজন মানুষও গৃহহীন থাকবে না” তারই ফলশ্রুতিতে প্রথম পর্যায়ে খাগড়াছড়ি জেলায় ৪ কোটি ৫৮ লক্ষ ২৮ হাজার টাকা ব্যায়ে ৯টি উপজেলার ২৬৮টি গৃহ ও ভূমিহীন পরিবারের মাঝে দূর্যোগ সহনীয় ঘর দেয়া হলো।

২৩ জানুয়ারী শনিবার সকাল সাড়ে ১০টায় ২৩ জানুয়ারী সদর উপজেলার সম্মেলন কক্ষে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সারাদেশের সাথে একযোগে এই ২৬৮টি ঘরের উদ্বোধন ঘোষণা করেন বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

পরে খাগড়াছড়ি সেদর উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে উপকার ভোগী পরিবারের হাতে নতুন ঘরের চাবি হস্তান্তর করেন খাগড়াছড়ি জেলার সংসদ সদস্য টাস্কফোর্স চেয়ারম্যান কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা ও খাগড়াছড়ি জেলা প্রশাসক প্রতাপ চন্দ্র বিশ্বাস।

এসময় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক আবু সাঈদ মোমেন মজুমদার, জেলা পুলিশ সুপার মো. আব্দুল আজিজ, খাগড়াছড়ি নবনির্বাচিত পৌর মেয়র ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নির্মলেন্দু চৌধুরী, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান মো. শানে আলম, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাহফুজা মতিন, খাগড়াছড়ি প্রেসক্লাবের সভাপতি জীতেন বড়ুয়াসহ বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারী প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা-কর্মচারী, বিভিন্ন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এবং উপকার ভোগী পরিবারের সদস্যগণ উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য দেশের অসহায় পরিবার মাথা গোঁজার ঠাঁই নাই এমন ব্যক্তিদের বাছাই করে প্রত্যেক ভূমি ও গৃহহীন পরিবারকে ২ শতাংশ খাসজমি বন্দোবস্ত করে ঐ জমির ওপর একটি সেমিপাকা ঘর নির্মাণ করা হয়েছে। প্রতিটি ঘরে বরাদ্দ ১ লাখ ৭১ হাজার টাকা। প্রতিটি ঘরে রয়েছে দু’টি কক্ষ, একটি রান্নাঘর, টয়লেট ও সামনে খোলা বারান্দাসহ অন্যান্য সুবিধা। খাগড়াছড়ি জেলার সদর উপজেলায় ৩৫টি, লক্ষ্মীছড়ি ২০টি, মহালছড়ি ১৫টি, দীঘিনালা ৩০টি, পানছড়ি ৫৫টি, রামগড় ২২টি, গুইমারা ১০টি, মাটিরাঙ্গা ২৬টি ও মানিকছড়ি ৫৫টি ঘরের চাবি বুঝিয়ে দেয়া হয় পরিবারগুলো।