খাগড়াছড়িখাগড়াছড়ি সংবাদপাহাড়ের সংবাদরামগড়শিরোনামস্লাইড নিউজ

রামগড়ে ইউপিডিএফ’র মানববন্ধন সফল হয় নি

রামগড় (খাগড়াছড়ি) প্রতিনিধি: খাগড়াছড়ি জেলার রামগড়ে ইউপিডিএফের ডাকা মানববন্ধন স্থানীয় জনতার বাধাঁয় পন্ড হয়ে গেছে। জানা গেছে কিছুদিন পূর্বে রামগড় উপজেলার বাটনাতলীর তৈঘাছড়াস্ত মোঃ হানিফ, ওবায়দুল ও সায়েদুল হকের ব্যক্তিমালিকানাধীন জমিতে অনুমতি ব্যতিত রাতের আধারেঁ গাছ কেটে অবৈধ বসত বাড়ি নির্মান করেছিলো উপজাতীয় সশস্ত্র সন্ত্রাসী সংগঠন ইউপিডিএফ সদস্যরা।

পরে ২৭ জানুয়ারি রোজ শনিবার স্থানীয় এলাকাবাসী,গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ, জনপ্রতিনিধি ও পুলিশের সহায়তায় অবৈধ বসতি গুলো উচ্ছেদ করে ভূমির মালিকরা। আর এ ঘটনাকে রং লাগিয়ে পার্বত্য চট্টগ্রামে অশান্তি সৃষ্টির লক্ষ্যে রামগড়ে অবস্থিত ৪৩ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ন,রামগড় জোনের বিজিবি সদস্য ও স্থানীয় বাঙ্গালীদের দোষারোপ করে উপজাতীয় লোকজনের বাড়ি ঘর ভাংচুরের কাল্পনিক প্রপাগান্ডা ছড়িয়ে এর প্রতিবাদে আজ রামগড়ে মানববন্ধনের ডাক দেয় ইউপিডিএফ। সকাল থেকেই উপজেলার বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ন পয়েন্টে পুলিশ-বিজিবির কড়া অবস্থান ছিলো।

কিন্তু ইউপিডিএফের এহেন উদ্দেশ্যপ্রনোদিত মানববন্ধনের প্রতিবাদে সকাল থেকেই রামগড়ের রামগড় জালিয়া-পাড়া সড়কের বিভিন্ন স্থানে অবস্থান নেয় স্থানীয় পাহাড়ী-বাঙ্গালী সম্প্রদায়ের জনসাধারণ। সরেজমিনে দেখা গেছে তৈচাকমা,বাটনাতলীসহ বিভিন্ন স্থান থেকে চাদের গাড়ি যোগে আসা ইউপিডিএফ কর্মীদের রাস্তায় প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে ধাওয়া দিলে ইউপিডিএফ কর্মীরা ছত্রভঙ্গ হয়ে রাস্তা ছেড়ে পালিয়ে যায়।

এবিষয়ে জানতে চাইলে রামগড় থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শরীফুল ইসলাম জানান, যেকোন অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে ও আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে বিভিন্ন পয়েন্টে পুলিশের টহল ছিল, এছাড়া আমি নিজেই টহলের নেতৃত্বে ছিলাম, সাধারন জনতার বাধাঁয় ইউপিডিএফ’র প্রোগ্রাম পন্ড হয়ে গেছে।