খাগড়াছড়িখাগড়াছড়ি সংবাদপাহাড়ের সংবাদরামগড়শিরোনামস্লাইড নিউজ

রামগড় কলেজ ছাত্র ফেনী নদীতে নিখোঁজ, উদ্ধার হয়নি এখনো

রামগড় প্রতিনিধি: রামগড়ের পাশ্ববর্তী বাগান বাজার স্কুল সংলগ্ন ফেনী নদীতে শুক্রবার (২৯ মে) রাত সাড়ে ৯টার দিকে উজানের পানিতে ভেসে আসা কাঠ ধরতে গিয়ে পানির তীব্র স্রোতে ভেসে গেছে রামগড় সরকারী ডিগ্রি কলেজের এইচএসসি পরিক্ষার্থী পলাশ দে (১৯) নামে এক তরুণ। সে ফটিকছড়ি উপজেলাধীন বাগানবাজার ইউনিয়নের পুরান রামগড় এলাকার স্বামী পরিত্যক্তা শিপ্রারাণীর ছেলে। তার দুই সন্তানের মধ্যে পলাশ বড় ছোট ছেলে নবম শ্রেণীতে পড়ে। খবর পেয়ে রামগড় ফায়ার সার্ভিস সিভিল ডিফেন্স, চট্টগ্রামের ডুবুরী দল ও যুব রেড ক্রিসেন্ট সহ স্থানিয়রা নিখোঁজকে উদ্ধারে চেষ্টা অভ্যাহত রেখেছে।
প্রত্যক্ষদর্শী প্রদীপ দে জানান, সন্ধ্যা থেকেই পলাশ সহ পাড়ার সহপাঠীরা মিলে পাহাড়ি উজান থেকে ফেনী নদীতে ভেসে আসা গাছের গুড়ি বাঁশ দিয়ে আটকিয়ে পাড়ে তুলছিলেন। এক পর্যায়ে একটু বড় আকারের একটি গাছের গুড়ি ভেসে যেতে দেখে পলাশ নদীতে ঝাঁপ দিয়ে গাছের গুড়িটি ধরার চেষ্টা করে কিন্তু পানির স্রোতের সাথে পলাশ টিকে উঠতে পারেনি। মুহুর্তের মধ্যেই পলাশ তলিয়ে যায়। সহপাঠীদের অনেকেই পানিতে নেমে পলাশকে অনেক খোঁজাখুজি করেও তার কোন সন্ধান পাওয়া যায়নি।
প্রতিবেশী তপন চন্দ্র দে বলেন, পলাশ অনেক মেধাবী একজন ছাত্র। মা শিপ্রারাণী বাগান বাজার উচ্চবিদ্যালয়ে আয়ার কাজ করে সন্তানদের লেখা-পড়া ও সংসার চালাতেন।
রামগড় ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন কর্মকর্তা ডলার ত্রিপুরা জানান, খবর পেয়ে স্থানিয়রা , রেড ক্রিসেন্ট ও ফায়ার সার্ভিস প্রাথমিক অনুসন্ধান চালিয়ে ছেলেটির কোন হদিস পায়নি। পরে চট্টগ্রাম থকে ডুবুরী দল আসে তারাও সকাল থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত অনুসন্ধান করে কোন হদিস করতে পারেনি। আপাদত উদ্ধার কাজ স্থগিত করা হয়েছে তবে সন্ধান না পাওয়া পর্যন্ত ফায়ার সার্ভিসের কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে। তাছাড়া স্থানিয় ভাবে একটি উদ্ধারটিম নদীতে বোট নিয়ে খুঁজছে বলে জানান।