খাগড়াছড়িখাগড়াছড়ি সংবাদপাহাড়ের সংবাদশিরোনামস্লাইড নিউজ

রূপা মল্লিক খাগড়াছড়ি সদর উপজেলার শ্রেষ্ঠ শিক্ষিকা

স্টাফ রিপোর্টার: খাগড়াছড়ি সদর উপজেলার শ্রেষ্ঠ সহকারী শিক্ষিকা মনোনীত হয়েছেন রূপা মল্লিক রূপু। তিনি খাগড়াছড়ি সদর উপজেলার টি এন্ড টি গেইট সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা। তার বাড়ি জেলা শহরের মনপুরা আবাসিক এলাকায়।

জানা যায়, ১৯৯০ সালের ২০ জানুয়ারী জন্মগ্রহণ করা এই শিক্ষিকা শিক্ষাগত পেশায় যোগদান করেন ২০১১ সালে। তিনি বিএ পাশ করার পাশাপাশি সার্টিফিকেট ইন এডুকেশন পরীক্ষা পাশ করেন ২০১২ সালে। সঙ্গীতের প্রশিক্ষক এবং আইসিটিতে অভিজ্ঞতা সম্পন্ন। এছাড়া স্কাউটস, রেড ক্রিসেন্ট ও বিভিন্ন সাংস্কৃতিক কাজে জড়িত থেকে মানবসেবায় কাজ করছেন। তিনি প্রধান মন্ত্রীর অফিস থেকে পরিচালিত এটুআই প্রোগামে ২০১৯ সালে দু’বার সেরা কন্টেন্ট নির্মাতা হয়েছেন।

ব্যক্তিগত জীবনে তিনি বিবাহিত এবং ইমাতুল জারিয়াহ প্রিয়ন্তি ও সাজিদ আবদুল্লাহ নামক দু”সন্তানের জননী। তার স্বামী খাগড়াছড়ি রেড ক্রিসেন্ট ইউনিটের ভাইস-চেয়ারম্যান ও জেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির(দুপ্রক) সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট জসিম উদ্দিন মজুমদার।

খাগড়াছড়ি সদর ইউএনও মোছাঃ শামছুন্নাহার বলেন শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নিয়ম মতে ৭ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি শ্রেষ্ঠ সহকারী শিক্ষিকা বাছাই করেন। ৩ ডিসেম্বও মঙ্গলবার বাছাই কমিটি আগ্রহী শিক্ষিকাদের মৌখিক পরীক্ষা নেন এবং বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে থাকা সাটিফিকেটগুলোর ভিত্তিতে নাম্বার যোগ কওে বুধবার দুপুরে শ্রেষ্ঠ শিক্ষিকা নির্বাচনের ফলাফল প্রকাশ করেন।

পাঠদান দক্ষতা, শিক্ষাগত যোগ্যতা, সহশিক্ষা কার্যক্রমে দক্ষতা ও তথ্যপ্রযুক্তির দক্ষতাসহ নানা বিষয় বিবেচনা করে রূপা মল্লিক রূপুকে উপজেলার মধ্যে শ্রেষ্ঠ সহকারী শিক্ষক নির্বাচিত করা কেরন বিচারকমন্ডলীরা। বাছাই কমিটিতে আরো ছিলেন উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মোঃ সাজ্জাদ হোসেন, সহকারী উপজেলা শিক্ষা অফিসার এডিন চাকমা, মোঃ মঞ্জর মোরশেদ, সুবায়ন চাকমা ও ইউআরসি ইন্সট্রাক্টর রিন্টু কুমার চাকমা। রুপা মল্লিক পাহাড়ের আলো পত্রিকার আইন বিষয়ক সম্পাদক এড. মো: জসিম উদ্দিন মাজুমদারের স্ত্রী। পাহাড়ের আলো পরিবার রুপা মল্লিলকে অভিনন্দন জানাচ্ছে।