বান্দরবান সংবাদশিরোনামস্লাইড নিউজ

লামায় পাথর চোরেরা বেপরোয়া কৃষি উৎপাদন ব্যাহত

বান্দরবান প্রতিনিধি ঃ- বান্দরবানের লামায় পাথর চোরেরা বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। পাহাড় ঝিরি নদী নালা খাল বিল নির্বিচারে কেটে-খুঁরে ব্যাপক হারে পাথর
আহরণের কারনে প্রাকৃতিক পরিবেশ বিপর্যস্থ হয়ে কৃষি উৎপাদনব্যাহত হওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

গতকাল উপজেলা পরিষদের মাসিক আইন-শৃঙ্খলা কমিটির সভায় ফাঁশিয়াখালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাকের হোসেন মজুমদার এ অভিযোগ করেন। তিনি বলেন, পাথর চোরেরা শতশত শ্রমিক নিয়োগ করে হাজার হাজার ঘনফুট পাথর তুলে নিয়ে ফাঁশিয়াখালী ইউনিয়নের বনফুর সড়কের পাশে স্তুপ করে রাখেন। এসব পাথর রাতের আঁধারে ট্রাকযোগে পাশ্ববর্তী চকরিয়া উপজেলার হাঁসেরদীঘি নামক স্থানে নিয়ে যান। এখানে এসব পাথর মেশিনের মাধ্যমে কংকর তেরী করে দেশের বিভিন্ন স্থানে বিক্রী করেন। একারনে পাহাড়ি ঝিরি ছরা খাল ও ছোট ছোট নদীসহ জলাশয়গুলো পাথরশুন্য হয়ে পানির প্রাকৃতিক উৎসসমুহ মরে যাওয়ার ফলে কৃষি উৎপাদন ব্যাহত হচ্ছে। তিনি আরো বলেন, সরকারি কোন প্রকার অনুমতি ছাড়াই পাথর চোর সিন্ডিকেট কোটি টাকার প্রাকৃতিক সম্পদ লুটপাট করে নিয়ে যাচ্ছে।

এবিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার নুর-এ জান্নাত রুমী বলেন, পাহাড়ের পাথর খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের আওতাভুক্ত। এ বিষযে বিহীত ব্যবস্থা নেয়ার সিদ্ধান্ত দেয়ার জন্য আমরা জেলা প্রশাসনের মাধ্যমে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণায় বরাবরে প্রতিবেদন পাঠাব।