Friday , 20 July 2018
বিলাইছড়ি ধর্ষণ ঘটনায় সংবাদ সম্মেলন,জেলা প্রশাসককে প্রত্যাহার দাবি

বিলাইছড়ি ধর্ষণ ঘটনায় সংবাদ সম্মেলন,জেলা প্রশাসককে প্রত্যাহার দাবি

ডেস্ক রিপোর্ট: বাংলাদেশ ফটো জার্নালিস্ট এসোশিয়েসন হলরুমে তিন নারী সংগঠন (সমাজতান্ত্রিক মহিলা ফোরাম, সিপিবি নারী সেল ও হিল উইমেন্স ফেডারেশন) বিলাইছড়িতে নিরাপত্তার বাহিনীর জওয়ান কর্তৃক দুই বোনকে ধর্ষণের বিচার ও সাজা দাবি করে এক সংবাদ সম্মেলন করেছে। ৩ ফেব্রুয়ারি সকাল সাড়ে ১১টায় এ সংবাদ সম্মেলন করা হয়। হিল উইমেন্স ফেডারেশনের সভানেত্রী নিরূপা চাকমা লিখিত বক্তব্য পেশ করেন। উপস্থিত সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন জলি তালুকদার (সদস্য, সিপিবি নারী সেল) ও শম্পা বসু (সাধারণ সম্পাদক, সমাজতান্ত্রিক মহিলা ফোরাম)।

লিখিত বক্তব্যে নিরূপা চাকমা হাসপাতালে নারী ও শিশু ওয়ার্ডে পুলিশ প্রহরায় যৌন নিপীড়নের শিকার তরুণীদের দেখতে পেয়ে বিস্মিত ও ক্ষুব্ধ হবার কথা জানান। তিন সংগঠনের প্রতিনিধি দল জেলা প্রশাসক, পুলিশের এডিশনাল এসপিসহ চাকমা সার্কেলের রাণী ইয়েন ইয়েন ও স্থানীয় মুরুব্বী-জনপ্রতিনিধিদের সাথেও সাক্ষাত করে। ধর্ষণের মত গুরুতর ও স্পর্শকাতর নারী নির্যাতনের ঘটনায় রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসকের মন্তব্য ও আচরণে প্রতিনিধি দলের সদস্যরা ব্যথিত হবার বিষয়টি সংবাদ সম্মেলনে গুরুত্বের সাথে তুলে ধরা হয়েছে। প্রতিনিধি দলের অপর দুই সদস্য জলি তালুকদার ও শম্পা বসু সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে জোরাল ভাষায় পার্বত্য চট্টগ্রামের নিপীড়নের চিত্র তুলে ধরেন। তারা কুমিল্লার সোহাগী জাহান তণু ধর্ষণ ও হত্যার বিষয়টিও স্মরণ করিয়ে দেন।

সংবাদ সম্মেলনে তিন নারী সংগঠনের পক্ষ থেকে রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসককে প্রত্যাহার, ধর্ষক সেনা জওয়ানদের সাজা প্রদানসহ ছয় দফা দাবি এবং কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়েছে। হিল উইমেন্স ফেডারেশন আগামী ১০ ফেব্রুয়ারি রাঙ্গামাটিতে সকাল সন্ধ্যা সড়ক ও নৌপথ অবরোধের কর্মসূচি দিয়েছে। তিন সংগঠন যৌথভাবে ১৬ ফেব্রুয়ারি ঢাকায় নারী নির্যাতনের বিরুদ্ধে সারা দেশে জনমত গঠনের লক্ষ্যে গোল টেবিল বৈঠক করবে। সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন হিল উইমেন্স ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় অর্থ সম্পাদক চৈতালী চাকমা, কেন্দ্রীয় সাংস্কৃতিক সম্পাদক কইংজনা মারমা ও কেন্দ্রীয় সদস্য রেশমি মারমা। সংবাদ সম্মেলনের  সাথে একাত্মতা প্রকাশ করে বিভিন্ন সংগঠনের অগ্রসর কর্মীগণ উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, সংবাদ সম্মেলনে গোয়েন্দাদের উপস্থিতি ছিল লক্ষ্যণীয়। বলতে গেলে মনস্তাত্ত্বিক চাপ সৃষ্টির লক্ষ্যে তারা ছিল তৎপর। গেল ২৮ জানুয়ারি রাতে তিন নারী সংগঠনের আট সদস্যের প্রতিনিধি দল রাঙ্গামাটিতে অনুসন্ধানী সফরে যায়। হাসপাতালে ভিক্টিম ও অন্যান্যদের সাথে সাক্ষাত শেষে আজ প্রতিনিধি দলটি সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে তথ্য তুলে ধরে কর্মসূচি ঘোষণা করেছে।

Share This:

BIGTheme.net • Free Website Templates - Downlaod Full Themes