Wednesday , 15 August 2018
গুইমারাতে পুলিশী বাধা বিএনপি’র ইফতার মাহফিলে

গুইমারাতে পুলিশী বাধা বিএনপি’র ইফতার মাহফিলে

স্টাফ রিপোর্টার: রহমত, মাগফিরাত ও নাযাতের বরকতময় সিয়াম সাধনার মাসে রোজাদারদের ইফতার করানোর মধ্যে প্রচুর সওয়াব রয়েছে বলে ইসলাম ধর্মে উল্লেখ থাকলেও পুলিশের বাধার কারণে নির্ধারিত স্থানে ইফতার মাহফিল করতে পারেনি গুইমারা উপজেলা বিএনপি। প্রতি বছর রমযানে গুইমারাতে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল, সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠন ও ব্যক্তি পর্যায়ে ব্যাপক আয়োজনের মধ্য দিয়ে ইফতার পার্টি বা ইফতার মাহফিল করার রেওয়াজ বহু বছর ধরে প্রচলিত থাকলেও এই প্রথমবার গুইমারাতে যথাযথ নিয়মে প্রশাসনের লিখিত অনুমোদন না থাকার কারণে ইফতার মাহফিলে বাধা দেয় পুলিশ।

১৩ রমযান(৩০মে) বুধবার গুইমারা উপজেলা বিএনপি’র উদ্যোগে গুইমারা কাশেম মার্কেটে(কলা বাজার)ইফতার মাহফিল করার যাবতীয় প্রস্তুতি সম্পন্ন করার শেষ মুহুর্তে সকাল সাড়ে ১১টায় প্রশাসনের লিখিত অনুমোদন না থাকার কারণে নির্ধারিত স্থানে ইফতার মাহফিল বন্ধ করে দেয় গুইমারা থানা পুলিশ। গুইমারা উপজেলা বিএনপি’র সভাপতি মোঃ ইউচুপ ও সাধারণ সম্পাদক শেখ মোঃ ইব্রাহীম জানান, গুইমারা উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে অনুমতির জন্য গেলে তিনি গুইমারা থানার অফিসার ইনচার্জ এর সাথে যোগাযোগের পরামর্শ দেন। পরে বিএনপি’র একটির প্রতিনিধি দল গত কয়েকদিন আগে থানায় লিখিতভাবে অনুমোদন পাওয়ার আবেদন করেন। গুইমারাতে এর আগে ইফতার মাহফিলে কোন প্রকার অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটনায় ইফতার মাহফিল করার মৌখিক অনুমোদন দেন বলে জানান তারা। সেই লক্ষ্যে ২হাজার রোজাদারকে দাওয়াত সহ ইফতার করানোর যাবতীয় প্রস্তুতি শেষ করেন উপজেলা বিএনপি। ইফতার মাহফিলে জেলা বিএনপি’র সভাপতি, পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের চেয়ারম্যান ও সাবেক সাংসদ ওয়াদুদ ভুইয়া প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকার কথা ছিল। কিন্তু শেষ মুহুর্তে বাধার কারণে সব কিছু এলোমেলো হয়ে যায়।

পরে গুইমারা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার পঙ্কজ বড়ুয়ার অস্থায়ী কার্যালয়ে গুইমারা থানার অফিসার ইনচার্জ মুহাম্মদ গিয়াস উদ্দিনের উপস্থিতিতে উপজেলা বিএনপি’র সভাপতি মোঃ ইউচুপ সাধারণ সম্পাদক শেখ মোঃ ইব্রাহীমের সাথে কথা বলে গুইমারা কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ প্রাঙ্গণে ইফতার করানোর অনুমতি দেন। নির্ধারিত স্থানে বাধা দেয়ার পর বিকল্প স্থান হিসেবে গুইমারা কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে ইফতার মাহফিল করার প্রস্তাব দিলে গুইমারা উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও মসজিদ কমিটির সভাপতি মোঃ জাহাঙ্গীর আলম মসজিদ প্রাঙ্গণে বিএনপিকে ইফতার মাহফিল করতে দিবে না বলে উপজেলা বিএনপির সিনিয়র নেতৃবৃন্দরা অভিযোগ করেন।

এব্যাপারে গুইমারা থানার অফিসার ইনচার্জ মুহাম্মদ গিয়াস উদ্দিন জানান, ইফতার মাহফিল করার প্রশাসনের পক্ষ থেকে লিখিত অনুমোদন না নেওয়ার কারণে আইন-শৃংখলার নিয়ন্ত্রণে রাখতে বিএনপিকে কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ প্রাঙ্গণে ইফতার মাহফিল করতে বলা হয়। বর্তমানে সকল প্রকার অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে অতিরিক্তি পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

এদিকে ইফতার মাহফিলের মত ধর্মীয় কাজে বাধা দেওয়াতে প্রশ্নের মুখে পড়ে পুলিশ সহ স্থানীয় প্রশাসন। ইফতারের কয়েকঘন্টা আগে আয়োজন বন্ধ করে দেওয়ায় বিষয়টি ন্যাক্কারজনক বলে জানান তারা। গুইমারা বাজারের একাধিক হিন্দু ব্যবসায়ী(নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক) ধর্মীয় কাজে বাধা দেওয়া কঠোর সমালোচনা সহ প্রশাসনের অদক্ষতাকে দায়ী করেন। গুইমারাতে সুন্দর একটি রাজনৈতিক শিষ্টাচার বিরাজ করছিল বলে জানিয়ে তারা বলেন ইফতার মাহফিলে বাধা দেওয়ার কারণে গুইমারা উপজেলার সাধারণ মানুষের শান্তিপুর্ন সহাবস্থান রক্ষা করা কঠিন হবে।

Share This:

BIGTheme.net • Free Website Templates - Downlaod Full Themes