খাগড়াছড়িখাগড়াছড়ি সংবাদপাহাড়ের সংবাদমাটিরাঙ্গাশিরোনামস্লাইড নিউজ

২৪ ঘন্টায়ও যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নতি হয়নি

অন্তর মাহমুদ,মাটিরাঙ্গা: খাগড়াছড়ি জেলার মাটিরাঙ্গায় ৪ দিনের টানা বর্ষার প্রবল বর্ষণে বিভিন্ন এলাকায় পাহাড় ধসে পড়ার ঘটনা ঘটেছে। ফলে অভ্যন্তরিন যান চলাচলের রাস্তা বন্ধ হয়ে মাটিরাঙ্গা সদরের সাথে সড়ক যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে প্রায় ২৪ ঘন্টা। স্থানীয়দের উদ্যোগে কিছু কিছু রাস্তার উপরে ধসে পড়া মাটি সরানো হলেও প্রশাসনের পক্ষ থেকে রাস্তার উপরের বিশাল আকৃতির মাটির স্তুপ সরানোর তেমন কোন কার্যকরী পদক্ষেপ গ্রহণের খবর পাওয়া যায়নি এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত। ফলে জনদুর্ভোগ ক্রমেই বাড়ছে।
উপজেলা প্রশাসন সুত্রে জানা গেছে, বিশাল আকৃতির পাহাড় ধসে সড়ক ও জনপদের রাস্তা বন্ধের বিষয়টি সংষিøষ্ট প্রশাসনকে জানানো হয়েছে। শীঘ্রই তারা প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহন করবেন । এ ছাড়াও এলাকাবাসীর বাসীর বরাত দিয়ে জানা গেছে, মাটিরাঙ্গা ১০ নং এলাকায় ভারী বর্ষনের ফলে পাহাড় মাটি ধসে বিদ্যুতের খাম্বা নড়বড়ে অবস্থায় রয়েছে, যে কোন সময় বিদ্যুতের খাম্বা উল্টে দুর্ঘটনা ঘটনার সম্ভাবনা রয়েছে।

মাটিরাঙ্গা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা অফিস সুত্রে জানা গেছে, মাটিরাঙ্গা পৌরসভা ও বিভিন্ন ইউনিয়নে ৭টি আশ্রয় কেন্দ্র খোলা হয়েছে, এবং মাইকিং এর মাধ্যমে জনগনকে সচেতনতামুলক বিভিন্ন এলাকায় সর্তকীকরণ বার্তা প্রচার করা হয়েছে। সরেজমিনে গিয়ে,মাটিরাঙ্গা পৌরসভার সদর ওয়ার্ড এলাকায় অবস্থিত  মাটিরাঙ্গা মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ঘোষনা দিয়ে আশ্রয় কেন্দ্র খোলা হলেও তাতে কাউকে আশ্রয় নিতে দেখা যায়নি। কাউকে প্রশাসনের পক্ষ থেকে প্রতিনিধিত্ব করতে দেখা যায়নি আশ্রয় কেন্দ্রে। ঘোষনাকৃত আশ্রয় কেন্দ্রে কোন সাইনবোর্ড বা ব্যানার দেখা যায়নি।

এছাড়া উপজেলা বিভিন্ন ইউনিয়ন কেন্দ্রে অবস্থিত আশ্রয় কেন্দ্রগুলোতেও কোন ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের সদস্যদের আশ্রয় নেয়ার খবর পাওয়া যায়নি। তবে ২০০-২০০১ অর্থবছরে জেলা পরিষদ নির্মিত মাটিরাঙ্গা দশ নং খামার সড়ক (তপ্তমাষ্টার পাড়া সেতু) ভেগে যাওয়ায় যান চলাচল সহ সব ধরনের যোগাযোগ বিছিন্ন রয়েছে। বন্যায় পানিতে ক্ষতিগ্রস্ত কাউকে কোন ধরনের আর্থিক সহযোগীতা করার খবর পাওয়া যায়নি।