খাগড়াছড়িখাগড়াছড়ি সংবাদপাহাড়ের সংবাদরাঙ্গামাটি সংবাদশিরোনামস্লাইড নিউজ

পল্লী চিকিৎসকসহ ৪দিনে নিহত ৩, আহত ২

স্টাফ রিপোর্টার: গত চার দিনে পাহাড়ে পড়েছে ৩ পাহাড়ি জনতার লাশ। চরম আতংকিত পাহাড়ে বসবাসরত পাহাড়ি সম্প্রদায়ের নিরীহ ও অসহায় এবং শান্তিকামী মানুষ। এ যেন চলছে রক্তের হোলি খেলা। আতংকিত এবং সন্ত্রাসীদের নির্মূলে পাহাড়ে শান্তি ফিরিয়ে আনতে সেনা মোতায়েনের দাবী জানাচ্ছে পাহাড়বাসী।

রাঙ্গামাটি জেলার  লংগদু উপজেলায় সশস্ত্র আঞ্চলিক সংগঠন, ইউপিডিএফ (প্রসীত) গ্রুপের গুলিতে জঙ্গলী চাকমা (৩২) নামের একজন নিহত এবং সুমতী চাকমা (৩০) নামের একজন গুরুতর আহত হয় গত শুক্রবার (১৫ জুন) সকাল সাড়ে ৮টার দিকে। দোসরপাড়া স্টীল ব্রিজ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। অপর দিকে একই দিন মহালছড়িতে ইউপিডিএফ (প্রসীত) গ্রুপের সন্ত্রাসীদের গুলিতে হামলায় তুফান চাকমা (৩৫) নামে এক ফুটবল দর্শক গুরুর আহত হয়। গত শুক্রবার রাঁত সাড়ে ৯টার দিকে উপজেলার উল্টাছড়িতে এ ঘটনা ঘটে। পরে তাকে খাগড়াছড়ি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। আহত তুফান চাকমার উদ্ধৃতি দিয়ে পুলিশ জানান, ইউপিডিএফ (প্রসীত) গ্রুপের সন্ত্রাসীরা তার উপর হামলা চালিয়েছে এবং তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে চারটি গুলি লেগেছিল।

শনিবার (১৬ই জুন) দুপুর ২টার দিকে খাগড়াছড়ি জেলার পানছড়ি উপজেলার পদনীপাড়া এলাকায় ইউনাইট্রে পিপলস্ ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউপিডিএফ (প্রসীত) গ্রুপের হামলায় জন সংহতি সমিতি জেএসএস (এমএন লারমা গ্রুপ)‘র কালেক্টর বিজয় ত্রিপুরা (৩৫) নিহত হয়েছে। সে মাটিরাঙ্গা উপজেলা গুমতি ইউনিয়নের বাসিন্দা।

সর্ব শেষ আজ রোববার (১৭ই জুন) সন্ধ্যা ৭টায় রাঙ্গামাটি জেলার বাঘাইছড়িতে ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট ইউপিডিএফ (প্রসীত) গ্রুপের গুলিতে নিজ বাড়িতে সুরেন বিকাশ চাকমা (৩৫) নামে একজন নিহত হয়েছেন। উপজেলার দূর্গম রুপকারী ইউনিয়নের দোখাইয়া গ্রামে এ হত্যাকান্ডে ঘটনা ঘটে। নিহত সুরেন বিকাশ চাকমা একজন পল্লী চিকিৎসক ও বাঘাইছড়ি উপজেলার রূপকারী ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য এবং দোখাইয়া গ্রামের বাসিন্দা। এসকল হত্যা কান্ডের জন্য জেএসএস ইউপিডিএফকে দায়ী করলেও ইউপিডিএফ তা অস্বিকার করেছে।

প্রসঙ্গত, গত নভেম্বর থেকে ইউপিডিএফ এর কেন্দ্রীয় নেতাসহ ১৫জন, উপজেলা চেয়ারম্যানসহ ইউপিডিএফ গণতান্ত্রিক এর ৬ এবং জেএসএস এর ৫জন নিহত হয়েছে।