জাতীয় সংবাদস্লাইড নিউজ

মেঘনায় শেষ মুহূর্তে ধরা পড়ছে রুপালী ইলিশ, জেলেদের মুখে হাসি

ঢাকা অফিস: লক্ষ্মীপুরে মেঘনা নদীতে শেষ মূহুর্তে ধরা পড়ছে রুপালী ইলিশ। জাল ফেললেই পাওয়া যাচ্ছে মাঝারি ও বড় ধরনের ইলিশ। মাছ বিক্রি করে ঘাটগুলোতে প্রতিদিন লেনদেন হচ্ছে কোটি টাকা। এতে মহাজনের ঋণ পরিশোধ করে স্বাচ্ছন্দ্যে সংসার চালাতে পারছেন জেলেরা। মাছ ধরতে নদীতে জাল নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন জেলেরা। গত কয়েকদিন ধরে জালে প্রচুর মাছ ধরা পড়ছে। সকল খরচ বাদ দিয়ে সংসার চালাতে এখন আর কষ্ট হচ্ছে না তাদের। এতে করে দিনরাত তারা নদীতে মাছ ধরতে ব্যস্ত রয়েছেন। গত দু সপ্তাহ আগেও নদীতে গিয়ে খালি হাতে ফিরতে হয়েছে জেলেদের। বর্তমানে চিত্র এখন ভিন্ন। এদিকে হাঁকডাক মুখরিত আড়তগুলোতে চলছে জমজামট বেচাকেনা। দুর দুরান্ত থেকে মাছ কিনতে আসেন ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা।

ব্যবসায়ীদের পাশপাশি ইলিশ কিনছেন বিভিন্ন পেশার মানুষ। কমলনগরের মতির হাট, লধুয়া ঘাট, চর ফলকন,সদরের মজুচৌধুরী হাট, বুড়ির ঘাট, রায়পুরের চর কাচিয়াসহ বেশ কয়েকটি আড়তে চলছে জমজমাট বেচাকেনা। দামও কিছুটা নাগালের মধ্যে বলে জানান ব্যবসায়ীরা। জেলা মৎস কর্মকর্তা এসএম মহিব উল্যা বলছেন, প্রশাসনের সহযোগীতায় জেলা মৎস্য বিভাগ মা ইলিশ ও ঝাটকা ইলিশ সংরক্ষণসহ নানামুখী পদক্ষেপ গ্রহণ করায় মেঘনা নদীতে ইলিশের উৎপাদন বৃদ্ধি পেয়েছে।

বিগত সময়ে সফল অভিযানের ফলে বর্তমানে সুফল পাচ্ছে জেলেরা। লক্ষ্মীপুরের রামগতির আলেকজান্ডার থেকে চাঁদপুরের ষাটনল এলাকার একশ কিলোমিটার পর্যন্ত ছোট-বড় প্রায় ৩০টি মাছঘাটে জেলেরা মাছ বিক্রি করছেন। জেলায় প্রায় ৬৫ হাজার জেলে রয়েছে। এদের মধ্যে নিবন্ধিত রয়েছে ৪৬ হাজার ৮শ জেলে।