ক্রীড়াখাগড়াছড়িখাগড়াছড়ি সংবাদপাহাড়ের সংবাদমানিকছড়িশিরোনামস্লাইড নিউজ

মানিকছড়িতে বঙ্গবন্ধু ফুটবল টুর্নামেন্টে ‘ময়ূরখীল সেতুবন্ধন ক্লাব’ চ্যাম্পিয়ন

মানিকছড়ি প্রতিনিধি: খাগড়াছড়ি জেলার মানিকছড়ি উপজেলায় অনুষ্টিত‘বঙ্গবন্ধু ফুটবল টুর্নামেন্টের ৩য় আসর এর ফাইনাল খেলায় উপজেলা ময়ূরখীল সেতুবন্ধন ক্লাব ১-০ গোলে একতা যুব সংঘ,মানিকছড়িকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করেছে। ২৮ সেপ্টেম্বর বিকাল সাড়ে ৩টায় অনুষ্টিত খেলায় প্রধান অতিথি ছিলেন,২৯৮ নং খাগড়াছড়ির সাংসদ সদস্য ও ভারত প্রত্যাগত শরনার্থী বিষয়ক ট্রাক্সফোর্স চেয়ারম্যান(প্রতিমন্ত্রী পদমর্যাদা) কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা।

বঙ্গবন্ধু ফুটবল টুর্নামেন্ট কমিটি সূত্রে জানা গেছে, গত ২০১৬ সাল থেকে ১ নং মানিকছড়ি ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো. শফিকুর রহমান ফারুক‘বঙ্গবন্ধু’ ফুটবল টুর্নামেন্টের আয়োজক। এবার টুর্নামেন্টের ৩য় আসরে উপজেলার ৩৩টি দল নক আউট পদ্ধতির এ খেলায় অংশ গ্রহন করেন। প্রায় দেড় মাস ব্যাপি মানিকছড়ি মাঠে অনুষ্টিত এ টুর্নামেন্টের সমাপনী পর্বে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন উপজেলার ঐতিহ্যবাহী দু’টি ক্রীড়া ও সামাজিক সংগঠন‘একতা যুব সংঘ বনাম ময়ূরখীল সতুবন্ধন ক্লাব’। খেলার প্রথমার্ধে কোন পক্ষ কারো জালে বল প্রবেশ করাতে ব্যর্থ হলেও দ্বিতীয়ার্ধের ২ মিনিট পর সেতুবন্ধন একতার ডিফেন্স ভেঙ্গে গোল করতে সক্ষম হয়। এতে সেতুবন্ধন ক্লাব ১-০ গোলে এগিয়ে যায়। এর পর দু’দল মরিয়া হয়ে উঠে গোল পরিশোধ এবং গোল ব্যবধান বাড়াতে। কিন্তু সে সুযোগ আর কারো হয়ে উঠেনি। ফলে ১-০ গোলে খেলার পরিসমাপ্তি ঘটে।

খেলা শেষে বিজয়ী ও বিজিত দলের হাতে ট্রপি তুলে বিতরণ পূর্ব সুধী সমাবেশে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন টুর্নামেন্টের আহবায়ক ১ নং মানিকছড়ি ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো. শফিকুর রহমান ফারুক। এর পর অতিথিদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন উপজেলা চেয়ারম্যান ¤্রাগ্য মারমা, সিন্দুকছড়ি জোন অধিনায়ক লে.কর্ণেল রুবায়েত মাহমুদ হাসিব পিএসসি, ও প্রধান অতিথি ২৯৮ নং খাগড়াছড়ির সাংসদ সদস্য ও ভারত প্রত্যাগত শরনার্থী বিষয়ক ট্রাক্সফোর্স চেয়ারম্যান(প্রতিমন্ত্রী পদমর্যাদা) কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা। এছাড়া অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন,জেলা পরিষদ সদস্য এম.এ. জব্বার, রে¤্রাচাই চৌধুরী, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান এম.এ.রাজ্জাক, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা.মো. নোমান মিয়া,ভাইস চেয়ারম্যান রাহেলা আক্তার, মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মো,সফিউল আলম চৌধুরী, অফিসার ইনচার্জ মুহাম্মদ রশীদ,উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি মো. জয়নাল আবেদীন, সাধারণ সম্পাদক মো. মাঈন উদ্দীন,ইউপি চেয়ারম্যান মো.শহীদুল ইসলাম মোহন, ক্যয়জরী মহাজন, ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান মো. বাহার মিয়া, আওয়ামীলীগ নেতা মো. আকতার হোসেন ভূইঁয়া, যুবলীগ নেতা মো. সামায়উন ফরাজী সামু, মো. জাহেদুল আলম মাসুদ, ছাত্রীলীগ সভাপতি মো. আলমগীর হোসেন সাধারণ সম্পাদক মো. মোস্তফা কামাল
এ সময় প্রধান অতিথি বলেন, খেলাধূলা মানুষের মধ্যে সেতুবন্ধন তৈরি করে। জীবনের গুরুত্বপূর্ণ একটি সময়ে তরুণ যুবকরা খেলাধূলায় জড়িত থাকার কারণে সুনাগরিক হতে শিখে। মাদক ও অপরাধ মুক্ত সমাজ গঠনে খেলাধূলার ভূমিকা অপরিহার্য। বর্তমান সরকার তৃণমূলে খেলাধূলা সম্প্রসারিত করায় আজ আমরা বিশ্বে ক্রিকেট ও ফুটবলে প্রশংসিত হচ্ছি। এ ধারা অব্যাহত রাখতে জনপ্রতিনিধি ও সমাজের বিত্তবানরা এগিয়ে আসতে হবে।

পরে মানিকছড়ি উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সভাপতি ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার তামান্না মাহমুদ বিজয়ী ও বিজিত দলকে বিশেষ পুরস্কার হিসেবে পাঁচ হাজার টাকা করে দু’দলকে দশ হাজার টাকা অর্থ সহায়তা করেন। অন্যদিকে সিন্দুকছড়ি জোন অধিনায়ক লে.কর্ণেল রুবায়েত মাহমুদ হাসিব পিএসসি,টুর্নামেন্ট কমিটিকে অর্থসহায়তা করেন। পরে প্রধান অতিথি বিজিত ‘একতা যুব সংঘ ও বিজয়ী দল ময়ূরখীল সেতুবন্ধন ক্লাবের খেলোয়াড়দের হাতে চ্যাম্পিয়ান ও রানার্স আপ ট্রপি তুলে দেন। টুর্নামেন্টে সেরা খেলোয়াড় ও সেরা গোল কিপার নির্বাচিত হন একতা যুব সংঘের রুবেল ও ইমন এবং সেরা গোলদাতা নির্বাচিত হয়েছেন ময়ূরখীল সেতুবন্ধন ক্লাবের উপ্রুমং মারমা। খেলার শুরু থেকে স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ মানিকছড়ি শাখার নেতাকর্মীরা।

মেডিক্যাল টিম হিসেবে ছিলেন, মো.মনির হোসেন ও মো. রফিকুল ইসলাম। এছাড়া বাংলাদেশ রেডক্রিসেন্টের মানিকছড়ি যুব ইউনিট প্রতিটি খেলায় চিকিৎসা সেবা প্রদান করেছে। ধারাবিবরণীতে ছিলেন, বাটনাতলী ইউপি সচিব মো. আবদুল হাকিম, প্রেস ক্লাব সাধারণ সম্পাদক আবদুল মান্নান, উপজেলা জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের এসএম জসিম উদ্দীন ও সাবেক ইউপি সদস্য দীপক চক্রবর্তী প্রমূখ।