খাগড়াছড়িখাগড়াছড়ি সংবাদপাহাড়ের সংবাদস্লাইড নিউজ

খাগড়াছড়ি জেলা নিকাহ রেজিষ্ট্রার কল্যাণ পরিষদের সম্মেলন ও অভিষেক

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি: শুধুমাত্র আইন প্রয়োগ করে বাল্য বিবাহ প্রতিরোধ করা সম্ভব নয়। এটি প্রতিরোধ করতে হলে সামাজিক আন্দোলনে রুপ দিতে হবে। এ ক্ষেত্রে নিকাহ রেজিষ্ট্রার তথা কাজীরা অগ্রনী ভুমিকা পালন করতে পারেন। বুধবার খাগড়াছড়ি জেলা নিকাহ রেজিষ্ট্রার কল্যাণ পরিষদের সম্মেলন ও অভিষেক অনুষ্ঠানে খাগড়াছড়ির জেলা প্রশাসক মো: শহিদুল ইসলাম প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।

দুপুরে খাগড়াছড়ি প্রেসক্লাবে আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে সভাপত্বি করেন সংগঠনের সভাপতি কাজী মো: রফিকুল ইসলাম। অনুষ্ঠানে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এস এম সালাহ উদ্দিন, খাগড়াছড়ি পৌরসভার মেয়র মো: রফিকুল আলম, খাগড়াছড়ি প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আবু তাহের মুহাম্মদ, জেলা বার এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট আকতার উদ্দিন মামুন ও সংগঠনের সাংগঠনিক সম্পাদক কাজী নুর হোসাইন জাহাঙ্গীর বক্তব্য রাখেন।

জেলা প্রশাসক কোর্ট ম্যারেজ কে একটি প্রতারনা উল্লেখ করে বলেন, আইনে কোর্ট ম্যারেজ এর কোন বিধান নেই। জেলা বিভিন্ন উপজেলার অপ্রাপ্ত বয়স্ক মেয়েদের জেলা সদরে এনে কতিপয় আইনজীবির সহযোগিতায় মিথ্যা ঘোষনা দিয়ে হলফনামা মুলে বিয়ে সম্পাদনের অভিযোগের কথা উল্লেখ করে কাজী ও আইনজীবিদের সর্তক করে বলেন, এর পরও আইনের ব্যত্যয় ঘটালে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে। তিনি এক্ষেত্রে জেলা বারের সহযোগিতা কামনা করেন।

অনুষ্ঠানের বিশেষ অতিথি খাগড়াছড়ি পৌরসভার মেয়র মো: রফিকুল আলম জেলা শহরের সুবিধাজনক স্থানে খাস ভূমিতে কাজীদের জন্য একটি অফিস ঘর নির্মাণ করে দেয়া এবং ২০ হাজার টাকা অনুদান দেয়ার ঘোষণা দেন।