পাহাড়ের সংবাদলক্ষ্মীছড়িশিরোনাম

লক্ষ্মীছড়িতে ৩টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে সম্ভাব্য প্রার্থী কারা ?

লক্ষ্মীছড়ি প্রতিনিধি : সারা দেশে পৌরসভা নির্বাচনের তফশিল ঘোষণা হলেও এখনো পর্যন্ত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের তফশিল ঘোষনা 491করতে হয়ত আর কিছুদিন সময় নিবে নির্বাচন কমিশন। কিন্তু এরি মাঝে আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সম্ভাব্য প্রার্থী করা হচ্ছেন এই নিয়ে জল্পনা কল্পনা শুরু হয়ে গেছে। নির্বাচনী পালে ধিরে ধিরে হাওয়া লাগতে শুরু করেছে খাগড়াছড়ির লক্ষ্মীছড়ি উপজেলায়ও। লক্ষ্মীছড়ি উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে সম্ভাব্য প্রার্থী কারা হচ্ছেন ইতি মধ্যে আলোচনা শুরু হয়ে গেছে। জানা যায়, উপজেলায় মোট ৩টি ইউনিয়ন লক্ষ্মীছড়ি সদর, দুল্যাতলী ও বর্মাছড়ি। দুর্গম বর্মাছড়ি ইউনিয়নের এখনো পর্যন্ত নির্বাচনী হওয়া না বইলেও সদর লক্ষ্মীছড়ি ও দুল্যাতলী ইউনিয়নে সম্ভাব্য প্রার্থী নিয়ে আলোচনার গুঞ্জন চলছে।

সদর লক্ষ্মীছড়ি ইউনিয়নে সম্ভাব্য প্রার্থীরা এখনো পর্যন্ত প্রকাশ্যে আলোচনা না করলেও ভেতরে ভেতরে অনেকেই প্রস্তুতি নিচ্ছেন এমন আবাস পাওয়া গেছে। উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান ও ভাইস-চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্ধিতা করেছেন কিংবা প্রার্থী ছিলেন এমন অনেকেই এবার ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী হিসেবে দেখা যেতে পারে। এছাড়াও বৃহত্তর রাজনৈতিক দলের সমর্থন কিংবা ইউপিডিএফ-জেএসএস’র সমর্থন নিয়েও কেউ কেউ প্রতিদ্বন্ধিতা করতে পারেন বলে সূত্রে জানা গেছে। বর্তমানে চেয়ারম্যান ও মেম্বার পদে আছেন এমন ব্যক্তিরাও শেষ পর্যন্ত জনমত যাচাইয়ের জন্য নির্বাচনে অংশ নিতে পারেন। প্রকৃত অর্থে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে কারা হচ্ছেন সম্ভাব্য প্রার্থী সে জন্য অপো করতে হবে আরো কয়েকটা দিন। তবে শেষ পর্যন্ত যদি দলীয় প্রতীকে নির্বাচন করার সিদ্ধন্ত আসে তাহলে নির্বাচনী প্রচারণা ও কৌশল পাল্টে যাবে অনেকটাই। সে ক্ষেত্রে দলীয় প্রার্থী বাছাইয়ের ক্ষেত্রে কঠিন পরীক্ষার সম্মখিন হবেন রাজনৈতিক দলগুলো। অপর দিকে পছন্দের প্রার্থীকে বিজয়ী করতে ইউপিডিএফ’র কৌশল তো বরাবরই সব স্থানীয় ও জাতীয় নির্বাচনে রয়েেেছই।

জানা যায়, লক্ষ্মীছড়ি সদর ইউনিয়নে উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক কালেন্দ্র চাকমা লেলিন, বাবুল চৌধুরী, সাজাউ মারমা, মেরিনা চাকমা, শুকনাছড়ি হেডম্যান সুপ্রীতি বিকাশ দেওয়ান, প্রবিল চাকমা, রতন চাকমা, দ্বীপান্তর চাকমা রাজু। এছাড়াও বর্তমান চেয়ারম্যান রাজেন্দ্র চাকমাকেও ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে দেখা যেতে পারে। অপর দিকে বরাবরই যাদেরকে নির্বাচন এলে সম্ভাব্য প্রার্থী হিসেবে নাম আলোচনায় আসে তারা হলেন, সাবেক আওয়ামীলীগ সভাপতি আবুল হাসেম চৌধুরী, সাবেক উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আব্দুল ওহাব খন্দকার, আব্দুল মাজেদ গাজি ও আব্দুর রশীদ মোল্লা অন্যতম। তবে আর কয়েকদিন গেলেই প্রকৃত পক্ষে কারা প্রার্থী হচ্ছেন তা অনেকেটাই স্পষ্ট হয়ে ওঠবে।

এদিকে ২ নং দুল্যাতলী ইউনিয়নে নির্বাচন নিয়ে বেশ জোড়ে সোড়ে আলোচনা না হলেও উছাইউ মারমা, পাইছ্উা মারমা ত্রিলন চাকমা দয়াধন, নুরে আলম নাম সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে আলোচনায় আসছে। এছাড়াও বর্তমান ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান অংক্যজাই মারমা প্রার্থী হবেন কিনা এখনো স্পষ্ট নয়। অপর দিকে বর্মাছড়ি ইউনিয়ন সম্পুর্ন উপজাতীয় অধ্যুষিত এলাকায় বেশ কয়েক জনের নাম ইতি মধ্যে লোকমুখে শোনা যাচ্ছে। বর্মাছড়ি ইউনিয়নের সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান স্বপন চাকমা, চাথোই প্রু মারমা, নীল বর্ণ চাকমার নাম চেয়ারম্যান পদে সম্ভাব্য প্রার্থী হতে পারেন বলে শোনা যাচ্ছে। এছাড়াও সাবেক ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান দেবরানী চাকমাকেও প্রার্থী হিসেবে দেখা যেতে পারে এমনটাই শোনা যাচ্ছে। অনেকের মতে চেয়ারম্যান ও মেম্বার পদে এবার নতুন মুখ দেখা যাবে। লক্ষ্মীছড়ি উপজেলায় যে কোন নির্বাচনে রাজনৈতিক প্রভাব যতটা না হয় তার চেয়ে বেশি হয় আঞ্চলিক দু’টি দলের প্রভাব। এ েেত্র ইউপিডিএফ’র প্রভার পরে নির্বাচনে সব চেয়ে বেশি। তবে এবার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ইউপিডিএফ ও জেএসএস’র প হতে সরাসরি প্রার্থী দিবে কিনা এ বিষয়টি এখনো পর্যন্ত কোনো প নিশ্চিত করেন নি। লক্ষ্মীছড়ি উপজেলায় মোট ভোটার ১৬ হাজার ৭’শ ৪৬ জন। তার মধ্যে লক্ষ্মীছড়ি ইউনিয়নে ৭ হাজার ৫’শ ৬৪ জন, দুল্যাতলী ইউনিয়নে ৪ হাজার ৬’শ ৭৯ জন ও বর্মাছড়ি ইউনিয়নে ৪ হাজার ৪’শ ৭০জন ভোটার রয়েছে প্রায়। সবশেষ নিবন্ধিত ভোটার যোগ হলে আরো কিছু বাড়তে বাড়ে বলে উপজেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা গেছে।

Comment here