পাহাড়ের সংবাদশিরোনামস্লাইড নিউজ

অপহৃত ইউপিডিএফ নেতা মাইকেল চাকমাকে উদ্ধারের দাবি

ডেস্ক রিপোর্ট: রাষ্ট্রীয় বিশেষ সংস্থা কর্তৃক অপহৃত ইউপিডিএফ-এর অন্যতম সংগঠক ও শ্রমজীবী ফ্রন্ট(ইউডব্লিউডিএফ)-এর কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক মাইকেল চাকমাকে উদ্ধারের দাবি জানিয়েছে চার সংগঠন গণতান্ত্রিক যুব ফোরাম, শ্রমজীবী ফ্রন্ট, পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ ও হিল উইমেন্স ফেডারেশন। গণতান্ত্রিক যুব ফোরাম কেন্দ্রীয় কমিটি যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বরুণ চাকমা স্বাক্ষরিত গণমাধ্যমে পাঠানো এক প্রেসবার্তায় এ খবর দেয়া হয়।

১৫ এপ্রিল ২০১৯, সোমবার সংবাদ মাধ্যমে প্রদত্ত এক যুক্ত বিবৃতিতে গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের সভাপতি অংগ্য মারমা, শ্রমজীবী ফ্রন্ট(ইউডব্লিউডিএফ)-এর সভাপতি সচিব চাকমা, পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের সভাপতি বিপুল চাকমা ও হিল উইমেন্স ফেডারেশনের সভাপতি নিরূপা চাকমা এ দাবি জানান।

বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেন, পাহাড়িদের ঐতিহ্যবাহী উৎসব বৈসাবি (বৈসুক-সাংগ্রাই-বিঝু) ও রানা প্লাজা ধ্বংসযজ্ঞের বার্ষিকী উপলক্ষে কর্মসূচি গ্রহণের জন্য মাইকেল চাকমা শ্রমিক এলাকায় সাংগঠনিক সফরে যান। কাঁচপুর এলাকায় সাংগঠনিক কাজ শেষে গত ৯ এপ্রিল বিকালে ঢাকায় কর্মসূচি বাস্তবায়ন পর্যালোচনা সভায় যোগদানের উদ্দেশ্যে রওনা হলে ওঁৎ পেতে থাকা একটি শক্তিশালী রাষ্ট্রীয় সংস্থা তাকে অজ্ঞাত স্থানে তুলে নিয়ে যায়। এরপর থেকে তার কোন হদিস পাওয়া যাচ্ছে না। তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোনটিও বন্ধ রয়েছে। তাকে নিয়ে তার পরিবার ও সংগঠনের নেতা-কর্মীরা গভীর উদ্বেগ ও উৎকণ্ঠার মধ্যে রয়েছেন।

পার্বত্য চট্টগ্রাম ও দেশের নিপীড়িত-নির্যাতিত ও শ্রমজীবী মানুষের ন্যায়সঙ্গত আন্দোলনকে ধ্বংস করে দেয়ার রাষ্ট্রীয় পরিকল্পনার অংশ হিসেবেই আন্দোলনের অন্যতম সংগঠক মাইকেল চাকমাকে তুলে নেওয়া হয়েছে বলে নেতৃবৃন্দ অভিযোগ করেন।

বিবৃতিতে চার সংগঠনের নেতৃবৃন্দ সরকার এ ঘটনার দায় কিছুতেই এড়াতে পারে না বলে স্পষ্ট জানিয়ে দেন এবং অপহৃত মাইকেল চাকমার কোন কিছু হলে সরকারকে দায়-দায়িত্ব বহন করতে হবে বলেও হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন। নেতৃবৃন্দ অবিলম্বে মাইকেল চাকমাকে উদ্ধারে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের জোর দাবি জানিয়েছেন।