খাগড়াছড়িখাগড়াছড়ি সংবাদপাহাড়ের সংবাদমহালছড়িশিরোনামস্লাইড নিউজ

খাগড়াছড়িতে শিশু অপহরণ মামলার রায়ে ৫ আসামীর যাবজ্জীবন কারাদন্ড

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি: দীর্ঘ বারো বছর পর খাগড়াছড়িতে এক শিশু অপহরণ মামলার রায় ঘোষণা করেছে আদালত। রায়ে অপহরণে জড়িত থাকায় শিশুটির আপন জেঠাতো ভাইসহ ৫ আসামীকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড দিয়েছে আদালত। একই সাথে ৫০ হাজার টাকা অর্থদন্ড অনাদায়ে আরো ১বছরের কারাদন্ড প্রদান করা হয়। ১৫ এপ্রিল সোমবার সকালে খাগড়াছড়ির নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক জেলা ও দায়রা জজ মোহাম্মদ ইসমাইলের আদালত এই রায় ঘোষণা করেন।

আসামীরা হলেন চট্টগ্রামের আগ্রাবাদের বাসিন্দা আলী আহাম্মদের ছেলে মো: ইউনুছ , মোঃ ইয়াকুবের ছেলে মোঃ ইয়াছিন, মৃত শংকর ধরের ছেলে নয়ন ধর, মোঃ গোলাম কাদেরের ছেলে মোঃ নিটু ওরফে লিটু , মোঃ নজরুল ইসলামের ছেলে মোঃ প্রিন্স। আসামীদের মধ্যে মোঃ প্রিন্স পলাতক রয়েছে। বাকী আসামীরা রায় ঘোষণার সময় আদালতে উপস্থিত ছিল। এদিকে, আসামী পক্ষের আইনজীবি এডভোকেট আলী নুর রায়ে অসন্তোষ প্রকাশ করে উচ্চ আদালতে যাওয়ার কথা বলেন।

উল্লেখ্য, ২০০৭ সালের ২০ ফেব্রুয়ারী খাগড়াছড়ি জেলার মহালছড়িতে সম্পত্তি নিয়ে বিরোধের জেরে উজ্জল ধর নামে এক শিশুকে তার জেঠাতো ভাই আসামী নয়ন ধরসহ বাকীরা অপহরণ করে নিয়ে যায়। পরে পরিবারের কাছে ৫ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবী করে তারা। মুক্তিপণের টাকা সময়মত না দিলে শিশুটিকে হত্যার হুমকিও দেয় তারা। পরিবারের পক্ষ থেকে বিষয়টি র‌্যাবকে জানানো হলে, র‌্যাব চট্টগ্রামের চৌমহনী থেকে ইউনুছ ও ইয়াসিনকে আটক করে। তাদের তথ্যের ভিত্তিতে আগ্রাবাদ মুহুরী পাড়া উত্তর আবাসিক এলাকার একটি বাসা থেকে অপহৃত শিশুটিকে উদ্ধার করে। এই ঘটনায় শিশুটির বাবা অংকর ধর মহালছড়ি থানায় একটি অপহরণ মামলা করেন। মামলার পর নয়ন ও নিটুকে আটক করা হলেও অপর আসামী প্রিন্স এখনো পলাতক রয়েছে।