খাগড়াছড়িখাগড়াছড়ি সংবাদপাহাড়ের সংবাদমানিকছড়িশিরোনামস্লাইড নিউজ

মানিকছড়ির স্কুল-মাদ্রাসায় বির্তক ও সংগীতানুষ্ঠান

মানিকছড়ি প্রতিনিধি: দুর্নীতি দমন কমিশন তৃণমূলে নতুন প্রজন্মদের মাঝে ‘সততা,ন্যায়পরায়নতা,নৈতিকতা,দেশপ্রেম জাগ্রতকরাসহ দুর্নীতিবিরোধী কার্যক্রম বাস্তবায়নে নানামূখী কর্মপরিকল্পনার অংশ হিসেবে মানিকছড়ি উপজেলার দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির আয়োজনে স্কুল-মাদ্রাসায় চলছে বির্তক,রচনা ও সাংস্কৃতিক/ কেরাত/হাম-নাত প্রতিযোগিতা-১৯।

২৫ এপ্রিল সকাল সাড়ে ১০টায় উপজেলার তিনটহরী উচ্চ বিদ্যালয়ে ‘সততা সংঘের ছাত্র/ছাত্রীদের নিয়ে অনুষ্টিত হয় বির্তক,রচনা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। এতে বদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি মো. আতিউল ইসলাম এর সভাপতিত্বে এবং উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সাধারণ সম্পাদক আবদুল মান্নান এর শুভেচ্ছা বক্তব্যে অনুষ্টিত অনুষ্ঠানে প্রধান শিক্ষক মো. আতিউল ইসলাম বলেন, দুর্নীতি দমন কমিশন(দুদক) দুর্নীতি দমনের পাশাপাশি সমাজের তৃণমূলে নতুন প্রজন্মদের পাশশাপাশি দেশপ্রেমিক সকল নাগরিকদের মাঝে দেশপ্রেম, সততা, ন্যায়পরায়নতা ,নৈতিকতা তথা আদর্শবান নাগরিক তৈরির লক্ষ্যে মাধ্যমিক স্কুল-মাদ্রাসায়‘সততা সংঘ’ ও সততা স্টোর চালু করেছে। আর এসব শিক্ষার্থীরে নিয়ে এ প্রথম উপজেলা পর্যায়ে চালু হয়েছে বির্তক,রচনা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

এ ধারা অব্যাহত থাকলে প্রজন্মের শিশু-কিশোররা জীবনের শুরুতেই সৎ,আদর্শবান ও দেশপ্রেমিক নাগরিক হিসেবে নিজেকে গড়ে তুলতে পারবে। পরে বির্তক,রচনা ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়। অপরদিকে দুপুর সাড়ে ১২টায় দক্ষিণ চেঙ্গুছড়া নেছারিয়া ইসলামীয়া দাখিল মাদ্রাসায় অনুষ্টিত হয় বির্তক,রচনা ও ইসলামী সংগীত প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠান।

সুপার মো. বেলাল হোসাইন এর সভাপতিত্বে অনুষ্টিত সভায় শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির ও প্রেস ক্লাব সাধারণ সম্পাদক আবদুল মান্নান। এতে অতিথি বক্তব্য রাখেন তিনটহরী ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান মো. বাহার মিয়া, সহকারী সুপার মো. আনোয়ার হোসাইন প্রমূখ।

সভায় শিক্ষার্থীরা কেরাত,হাম,নাত পরিবেশন করেন। পরে অতিথিরা বলেন, দুদক স্কুল-মাদ্রাসায় গঠিত‘সততা’ সংঘের কার্যক্রম বাড়াতে যে উদ্যোগ(বিতর্ক,রচনা ও সংগীত অনুষ্টান) গ্রহন করেছে তা প্রশংসার দাবী রাখে। কারণ আজকের প্রজন্মরা হালাল-হারাম,ন্যায়-অন্যায়ে একাকার। আসলে দেশে এখন সৎ মানুষের বড়ই অভাব। আদর্শ,সৎ,যোগ্য, দেশপ্রেমিক ও ধার্মিক লোক সৃষ্টিতে ‘সততা সংঘ’ প্রতিষ্ঠানে কাজ করছে। আর দুদক এসব সু-নাগরিক তৈরিতে সহযোগিতায় এসেছে। প্রতিটি মাধ্যমিক স্কুল-মাদ্রাসা ও কলেজে ‘সততা সংঘ’ সততা স্টোর চালু হচ্ছে। এধারা অব্যাহত থাকলে অচিরেই দেশে সৎ ও আদর্শবান নাগরিক গড়ে উঠবে। পরে বির্তক,রচনা ও হাম্/নাত প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়।