খাগড়াছড়ি সংবাদপাহাড়ের সংবাদমানিকছড়িশিরোনামস্লাইড নিউজ

মানিকছড়ি ইউপি’র ৮৩ লক্ষ টাকার বাজেট ঘোষণা

স্টাফ রিপোর্টার: মানিকছড়ি সদর ইউনিয়ন পরিষদে আগামী ২০১৯-২০ অর্থ বছরের বাজেট ঘোষণা করা হয়েছে। এতে সরকারি,বেসরকারি খাতে আয় ধরা হয়েছে ৮৩ লক্ষ ২ হাজার আটশত টাকা। আর ব্যয় ধরা হয়েছে ৮২ লক্ষ ২০ হাজার টাকা মাত্র।

গত শুক্রবার অনৃষ্টিত বাজেট অধিবেশন সভায় সভাপতিত্বে করেন ইউপি চেয়ারম্যান মো.শফিকুর রহমান ফারুক। আর অধিবেশন পরিচালনা করেন ইউপি সচিব মো. মোশারফ হোসেন মজনু। অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান এম.এ. রাজ্জাক,ম্রাগ্য মারমা, যুবলিগের সাধারণ সম্পাদক মো. জাহেদুল আলম মাসুদ, সমাজ সেবা কর্মকর্তা আবুদল মান্নান প্রমূখ।

সচিব সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে ২০১৮-২০১৯ অর্থ বছরের প্রাপ্ত অর্থের ব্যয়-বিবরণী তুলে ধরেন এবং আসন্ন অর্থবছর(২০১৯-২০২০)এর সম্ভাব্য আয় এবং ব্যয় বিবরণীর খন্ডচিত্র তুলে ধরেন। পরে উপস্থিত সদস্য ও সদস্যদের মধ্যে প্যানেল চেয়ারম্যান মো. ইদ্রিস ইসলাম বাচ্চু, সদস্য মো. কামাল হোসেন, মো. আইয়ূব আলী, মো.মোশারফ হোসেন ও মনোয়ারা বেগম বক্তব্য রাখেন।

প্রস্তাবিত বাজেটে দেখা গেছে, জনগণের থেকে নেওয়া কর বাবদ ২ লক্ষ ৮০ হাজার টাকা। নিবন্ধন কর(সনদ) ধরা হয়েছে ১৫ হাজার টাকা, ট্রেড লাইসেন্স বাবদ ১ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা, সম্পত্তির ভাড়া বাবদ ৮৫ হাজার টাকা, খোয়ার বাবদ আয় ধরা হয়েছে ৩ হাজার টাকা, জন্ম নিবন্ধন ফি ধরা হয়েছে ৬০ হাজার টাকা, খেয়াঘাট ও টয়লেট ইজারা বাবদ আয় ধরা হয়েছে ৫০ হাজার টাকা, সরকারি অনুদান- সংস্থাপন ভাতা নির্বাচিতদের ৯ লক্ষ ৫৫হাজার টাকা, কর্মচারীর বেতন-ভাতা ৫ লক্ষ টাকা, সরকারি উন্নয়ন (এল.জি.এস.পি-২) ১৫ লক্ষ টাকা,স্থানীয় সরকার(জেলা পরিষদ) অনুদান ৩৫% ২ লক্ষ ৩০ হাজার টাকা, স্থানীয় সরকার উপজেলা পরিষদ অনুদান ৭ লক্ষ টাকা, এডিপি/হতদরিদ্র,টিআর,কাবিখা/কাবিটা থেকে ৩৮ লক্ষ টাকাসহ মোট আয় ধরা হয়েছে ৮৩ লক্ষ ২ হাজার ৮ শত টাকা। পক্ষান্তরে ব্যয় ধরা হয়েছে চেয়ারম্যান ও সদস্যদের ভাতা বাবদ ৫ লক্ষ টাকা, কর্মচারী ভাতা ৬ লক্ষ টাকা, চৌকিদার ২ লক্ষ টাকা, কর আদায়ে ব্যয় ৭০ হাজার টাকা, প্রিন্ট ব্যয় ৩০ হাজার টাকা,বিদ্যুদ বিল বাবদ ৩০ হাজার টাকা, আসবাবপত্র ও আপ্যায়ন বাবদ ৬০ হাজার টাকা, অফিস রক্ষণাবেক্ষণ ২ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা, আর্থিক সাহায্য ২ লক্ষ টাকা, অন্যান্য ব্যয়-ভ্রমণ ১ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা, যোগায়োগ খাতে ব্যয় ধরা হয়েছে ১৭ লক্ষ টাকা স্বাস্থ্য,টিআর,কাবিখা,কাবিটায় ব্যয় ধরা হয়েছে ২০ লক্ষা টাকা, পানি সরবরাহ বাবদ ৬০ লক্ষ টাকা, শিক্ষায় ৬ লক্ষ টাকা, প্রাকৃতিক সম্পদ ব্যবস্থাপনায় ২ লক্ষ টাকা, কৃষি ও বাজার ২ লক্ষ টাকা, পয়ঃনিস্কাশন ও বর্জ্য ব্যস্থাপনায় ২ লক্ষ টাকা, মানব সম্পদ উন্নয়নে ২ লক্ষ টাকাসহ মোট সম্ভাব্য ব্যয় ধরা হয়েছে ৮২ লক্ষ ২০ হাজার টাকা।

উল্লেখিত আয়-ব্যয় বিবরণী পেশ করার পর উপস্থিত সকল সদস্যরা ঘোষিত বাজেটের পক্ষে মতামত পেশ করায় সভাপতি ও চেয়ারম্যান তাঁর সমাপনী বক্তব্যে সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে ঘোষিত বাজেট বাস্তবায়নে সকলের সহযোগিতা কামনা করে ঘোষিত বাজেট অনুমোদন করেন।