খাগড়াছড়িখাগড়াছড়ি সংবাদদীঘিনালাপাহাড়ের সংবাদশিরোনামস্লাইড নিউজ

সংবাদ প্রকাশের পর ভাতাবিহীন সেই ৬ প্রতিবন্ধীর পাশে খাগড়াছড়ি জেলা প্রশাসক

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি: দিঘীনালা উপজেলার দূর্গম ভূঁইয়াছড়া গ্রামের ভাতাবিহীন একই পরিবারের ৬প্রতিবন্ধীর পাশে খাগড়াছড়ি জেলা প্রশাসক এবং পার্বত্য প্রেসক্লাব ও সবুজ পাতার দেশ। জেলা প্রশাসক প্রতাপ চন্দ্র বিশ্বাস নগদ ২৫হাজার টাকার পাশাপাশি গুচ্ছগ্রাম ২য় পর্যায় প্রকল্পের অধীনে একটি সেমিপাকা গৃহ নির্মাণ করে দেয়াসহ ৬প্রতিবন্ধীর সকলকে প্রতিবন্ধী ভাতার আওতায় আনার জন্য দিঘীনালা উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা এবং প্রতিবন্ধীদের চিকিৎসার প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহনের জন্য জেলা প্রতিবন্ধী কর্মকর্তাকে নির্দেশ দিয়েছেন।

৩০নভেম্বর সোমবার সকালে নিজ দপ্তরে প্রতিবন্ধীদের হাতে ২৫হাজার টাকার চেক তুলে দেয়ার সময় জেলা প্রশাসক বলেন, জেলার সকল প্রতিবন্ধীকে ভাতাসহ সরকারী সকল সুযোগ-সুবিধার আওতায় আনার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের নির্দেশনা দেয়া আছে। এ ব্যাপারে যাতে কেউ কোন আইনের ব্যত্বয় অথবা গাফিলতি করতে না পারে সে ব্যাপারে সাংবাদিকদেশর সতর্ক দৃষ্টি রাখার আহবান জানান।

প্রতিবন্ধীদের আর্থিক সহায়তার চেক হস্তান্তরের সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, সমাজ সেবা কর্মকর্তা রোকেয়া বেগম, খাগড়াছড়ি সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি নুরুল আজম, পার্বত্য প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ও দৈনিক সবুজ পাতার দেশ পত্রিকার সম্পাদক জুলহাস উদ্দিন, দৈনিক যুগান্তরের জেলা প্রতিনিধি সমীর মল্লিক, পার্বত্য প্রেসক্লাবের অর্থ সম্পাদক আব্দুলাহ আল মামুন, সদস্য সুজন বড়ুয়া, মেরুং ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ড মেম্বার হেলাল উদ্দিন, লোকমান হোসেন, নুর মোহাম্মদ হৃদয় প্রমুখ।

গত ১৮নভেম্বর পার্বত্য প্রেসক্লাবের সাংবাদিকরা সরেজমিনে দীঘিনালার মেরুং ভুইয়াছড়া গেলে তাদের অনুসন্ধানে উঠে আসা এবং দৈনিক সবুজ পাতার দেশ, পাহাড়ের আলো, দৈনিক অগ্রসর পত্রিকাসহ একাধীক জাতীয় দৈনিকে ‘‘ভাতাবিহীন একই পরিবারের ৬প্রতিবন্ধী’’ শিরোনামে সংবাদটি প্রচার হয়।