আন্তর্জাতিক স্বীকৃতির দাবীর মধ্য দিয়ে গুইমারাতে ২৫মার্চ গণহত্যা দিবস পালিত

স্টাফ রিপোর্টার: বাংলাদেশের নব দিগন্তের সুচনা হয়েছিল ৭মার্চ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক ভাষনের মধ্য দিয়ে। সেই হ্যামিলিনের বাঁশিওয়ালার মত বঙ্গবন্ধুর ভাষণ জাদুর বাঁশির বিমোহিত সুরের মন্ত্রে উজ্জিবিত হয়ে বাঙ্গালি জাতি যখন স্বাধীনতা ও মুক্তির চেতনায় মগ্ন পশ্চিমা বাহিনী যখন বুঝতে পারে যে বাংলার দামাল ছেলেরা চুড়ান্ত আঘাত হানতে  প্রস্তুত সেই মুহুর্তে ১৯৭১ সালের ২৫মার্চ কালো রাতে পাক হানাদার বাহিনী চালায় বাংগালী জাতির উপর চালায় ইতিহাসের সব চেয়ে জঘন্যতম নির্মম গণহত্যা। অপারেশন চার্জ লাইটের নামে এদেশের নিরস্ত্র নিরীহ মানুষের উপর হামলা চালিয়ে ৫০ হাজারের ও বেশী মানুষকে হত্যা করে ২৫ মার্চ গনহত্যা দিবসের আলোচনায় সভায় এসব কথা বলেন আমন্ত্রিত অতিথি বৃন্দ। সারা দেশের ন্যায় খাগড়াছড়ি’র গুইমারা উপজেলায় যথাযোগ্য মর্যাদায় পালিত হয়েছে গণহত্যা দিবস।

সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায় গুইমারা উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে উপজেলা নির্বাহী অফিসার পঙ্কজ  বড়ুয়ার সভাপতিত্বে ২৫মার্চ গনহত্যা দিবসের আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন, গুইমারা উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মোঃ জাহাঙ্গীর আলম, সাধারণ সম্পাদক ও গুইমারা সদর ইউপি চেয়ারম্যান মেমং মারমা, সাংগঠনিক সম্পাদক আইয়ুব আলী মেম্বার, সুইমং মারমা, বীর মুক্তিযোদ্ধা কংক্য মারমা, গুইমারা মডেল হাই স্কুলের প্রধান শিক্ষক সুশীল রঞ্জন পাল, গুইমারা দাখিল মাদ্রাসার সুপার জায়নুল আবদীন প্রমুখ।

আলোচনা সভা শেষে শহীদদের আত্মার শান্তি কামনায় বিশেষ দোয়া ও মুনাজাত করা হয়। গুইমারা দাখিল মাদ্রাসার সুপার মাওলানা মোঃ জায়নুল আবদীন মুনাজাত পরিচালনা করেন। পরে রাত ৯টা থেকে ৯টা ১মিনিট পর্যন্ত ব্ল্যাক আউট পালন করেন গুইমারাবাসী।

পাহাড়ের আলো

https://pahareralo.com

সর্বাধিক জনপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল। সর্বশেষ সংবাদ সবার আগে জানতে চোখ রাখুন পাহাড়ের আলোতে।

Related post