ইউপিডিএফ’র ডাকে সড়ক অবরোধে ২য় দিনে লক্ষ্মীছড়িতে কড়াকড়ি

লক্ষ্মীছড়ি প্রতিনিধি:  খাগড়াছড়ি জেলার লক্ষ্মীছড়ি উপজেলায় ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট(ইউপিডিএফ)-এর ডাকা সকাল-সন্ধ্যা সড়ক অবরোধের ২য় দিনে বেশ কড়াক

মাটিরাঙ্গায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম শতবার্ষিকী উপলক্ষে স্মারক বৃক্ষরোপন কার্যক্রম উদ্বোধন
রামগড়ে ইউএনডিপি’র উদ্যোগে অসহায়দের মাঝে ত্রাণ বিতরণ
খাগড়াছড়িতে তালাবদ্ধ ভাড়াবাসা থেকে গৃহবধুর লাশ উদ্ধার

লক্ষ্মীছড়ি প্রতিনিধি:  খাগড়াছড়ি জেলার লক্ষ্মীছড়ি উপজেলায় ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট(ইউপিডিএফ)-এর ডাকা সকাল-সন্ধ্যা সড়ক অবরোধের ২য় দিনে বেশ কড়াকড়ি অবস্থা পরিলক্ষিত হয়েছে। শনিবার প্রথম দিনের চেয়ে  ৭ জানুয়ারি ২য় দিন রবিবার বেশ কঠোর অবস্থান নেয় পিকেটাররা।

খবর নিয়ে জানা যায়, লক্ষ্মীছড়ি-মানিকছড়ি সড়েক মংহলা পাড়া  যাত্রীছাউনি এলাকায় মূল পাকা সড়কের বেশ কিছু অংশে পিচ উঠিয়ে মাটি খুড়ে ফেলে। খবর পেয়ে দ্রুত সেনাবাহিনী ও পুলিশের টহল ঘটনাস্থলে পৌছলে পিকেটাররা পালিয়ে যায়। পরে সেনাবাহিনী ও পুলিশ সহায়তায় মাটি ভরাট করলে রাস্তায় যান চলাচল শুরু হয়। এ ঘটনায় সকালের দিকে কিছু সময় যান চলাচল বন্ধ থাকে। এছাড়া মেজর পাড়া এলাকায় গাছের গুড়ি ফেলে সড়ক অবরোধ করার চেষ্টা করলেও পরে আবার চালু হয়। রবিবার সাপ্তাহিক হাঁটের দিন হওয়ায় যানবাহন না থাকায় শত শত মানুষ দুর্ভোগের শিকার হয়। গাড়ি না পেয়ে দুর-দুরান্ত থেকে নারি পুরুষ পায়ে হেঁটে শাকশব্জি, কলা,কুচ অন্যান্য কৃষি পন্য মাথায় বহন করে আনতে দেখা গেছে। বিশেষ কওে লক্ষ্মীছড়ি, দুল্যাতলী ও বর্মাছড়ি আভ্যান্তরিন সড়কে কড়াকড়ি ছিল বেশি।

এ প্রতিনিধি বাইন্যাছোলা, মংহলা পাড়া পরিদর্শনে গেলে রাস্তা অনেকটাই ফাঁকা দেখা যায়। সেনাবাহিনী ও পুলিশের টহল ও নিরাপত্তা ব্যবস্থা  ছিল চোখে পড়ার মত। লক্ষ্মীছড়ি থানার অফিসার্স ইনচার্জ আ: জব্বার এ প্রতিনিধিকে বলেন, আমি মাঠে রয়েছি, কেউ কোনো কিছু করে পাড় পাবে না। এখন পরিস্থিত শান্ত মানুষ ও যানবাহন নিরাপদ ভাবেই চলা করছে বলে তিনি জানান। । দুপুর ১২টার দিকে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত কোথাও আর কোনো অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায় নি।

উল্লেখ্য ইউপিডিএফ’র খাগড়াছড়ি জেলা সাংগঠনিক সম্পাদক মিঠুন চাকমার হত্যাকারীদের বিচারের দাবিতে এ সড়ক অবরোধের ডাক দেয় সংগঠনটি।