ইসলামি শিক্ষা ছড়িয়ে দিতে কাজ করছে মাটিরাঙ্গা দারুল উলুম মাদরাসা

ইসলামি শিক্ষা ছড়িয়ে দিতে কাজ করছে মাটিরাঙ্গা দারুল উলুম মাদরাসা

মাটিরাঙ্গা প্রতিনিধি: পার্বত্য খাগড়াছড়ি জেলাধীন মাটিরাঙ্গা উপজেলার গোড়াপত্তন হয়েছে প্রায় ৪৫ বছর । মুসলিম প্রধান দেশ হলেও এই উপজেলায় অদ্যবদি মাটিরাঙ্গা

খাগড়াছড়ি কৃষি বিভাগ কর্তৃক বাগান চাষীদের কৃষি উপকরণ বিতরণ
গুইমারায় ত্রিমূখী সংঘর্ষে সড়কে দুর্ঘটনায় আহত ২
লক্ষ্মীছড়ি কালী মন্দিরে শারদীয় দুর্গাপূজা প্রস্তুতি সম্পন্ন

মাটিরাঙ্গা প্রতিনিধি: পার্বত্য খাগড়াছড়ি জেলাধীন মাটিরাঙ্গা উপজেলার গোড়াপত্তন হয়েছে প্রায় ৪৫ বছর । মুসলিম প্রধান দেশ হলেও এই উপজেলায় অদ্যবদি মাটিরাঙ্গা দারাছুন্নাহ মাদরাসা (কওমী) ও মাটিরাঙ্গা আলীম মাদরাসা (আলিয়া) ছাড়া ইসলামি শিক্ষা-দীক্ষার প্রসারে তেমন কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান (কওমী মাদরাসা) গড়ে উঠেনি। বিষয়টি হৃদয় দিয়ে অনুভব করে এই এলাকার মুসলমান প্রজন্মের জন্য ইসলামী শিক্ষা গ্রহনের পরিবেশ সৃষ্টির লক্ষে মাওলানা আখতারুজ্জামান ফারুকী নামক জনৈক ব্যক্তি এলাকার কিছু সংখ্যক আলেম ওলামাদের আর্থিক সহায়তা নিয়ে প্রতিষ্ঠা করেন মাটিরাঙ্গা দারুল উলুম মাদরাসা নামে একটি ইসলামী দীনি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ।

মাটিরাঙ্গা বাজারের প্রাণ কেন্দ্র সবজ্বী গলির সাদিয়া প্লাজা জুলহাস ভবনে নুরানী ও হিফজ বিভাগ নিয়ে প্রতিষ্ঠানটি ২০১৮ সালে যাত্রা শুরু করে । শুদ্ধ কোরআন, সহিহ হাদিস শিক্ষার পাশাপাশি আধুনিক বাংলা ও ইংরেজি বিষয়ের মত গুরুত্বপুর্ণ বিষয়গুলো সমানতালে পড়ানো হয় এখানে । ফলে ধীরে ধীরে প্রতিষ্ঠানটির মানসম্মত পাঠদান কার্যক্রমের সুনাম উপজেলা সদরসহ আশেপাশের বিভিন্ন দিকে ছড়িয়ে পরছে । বর্তমানে প্রতিষ্ঠানটির নুরানী ও হিফজ বিভাগে প্রায় ৩৫০ জন শিক্ষার্থী অধ্যয়নরত রয়েছে । প্রতিষ্ঠানটি থেকে এ পর্যন্ত প্রায় ১০ জন শিক্ষার্থী হিফজ সম্পন্ন করে আরো উচ্চতর ইসলামি শিক্ষার ডিগ্রি অর্জনে দেশের বিভিন্ন নামীদামি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অধ্যয়নরত আছেন । প্রতিবছর ডিসেম্বর থেকে নতুন শিক্ষার্থী মাদরাসাটিতে ভর্তি কার্যক্রম চলে । তারই ধারাবাহিকতায় এ বছরেও প্রতিষ্ঠানটিতে ১ ডিসেম্বর থেকে মাদরাসাটিতে নতুন শিক্ষার্থী ভর্তি কার্যক্রম চলছে । বর্তমানে প্রতিদিন সকাল ৯টা থেকে দুপুর সাড়ে ১২ টা পর্যন্ত ভর্তি সংক্রান্ত সকল কার্যক্রম চলমান রয়েছে । আগ্রহী অভিভাবকদের মাদরাসার অফিস চলাকালিন সময়ে ভর্তি ইচ্ছুক শিক্ষার্থীদের জন্ম সনদের ছায়াকপি ও পাসপোর্ট সাইজের ২ কপি ছবি এবং পিতা-মাতার এনআইডির ছায়াকপি সঙ্গে আনতে হবে । মাদরাসাটির শিক্ষার মান সম্পর্কে প্রতিষ্ঠানটির পরিচালক মাওলানা আখতারুজ্জামান ফারুকী সাংবাদিকদের জানান, শিক্ষার মান উন্নয়নে সর্বদা অভিজ্ঞ শিক্ষকমন্ডলী দ্বারা আমরা পাঠদান কার্যক্রম পরিচালনা করছি । শিক্ষার্থীদের সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিতে ২৪ ঘন্টা সিসি ক্যামেরা দ্বারা পর্যবেক্ষন করে থাকি ।

এছাড়াও শিক্ষার মান উন্নয়নে শ্রেণি ভিত্তিক মাসিক পরিক্ষা গ্রহন এবং দুর্বল শিক্ষার্থীদের জন্য প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহন করি । এ সময় তিনি আরো জানান, আমাদের প্রতিষ্ঠানে নুরানী বিভাগে প্লে, নার্সারী ১ম, ২য়, ৩য় ও চতুর্থ শ্রেনি চলমান রয়েছে । হিফজ বিভাগে নাজেরা, হিফজুল কোরআন, হিফজ রিভিশন (দাওর) চালু রয়েছে । অন্তর মাহমুদ, মাটিরাঙ্গা প্রতিনিধি ঃ

COMMENTS