খাগড়াছড়িখাগড়াছড়ি সংবাদপাহাড়ের সংবাদমানিকছড়িশিরোনামস্লাইড নিউজ

উন্নত দেশ গড়ে তুলতে হলে অবশ্যই তামাকাসক্ত যুব সমাজকে রক্ষা করতে হবে

মানিকছড়ি প্রতিনিধি: তরুণ সমাজের উপর নির্ভর করেই কিন্তু বাংলাদেশ ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত দেশের কাতারে উপনীত হতে চায়। কিন্তু তামাকাসক্ত অসুস্থ তরুণ প্রজন্ম এই লক্ষ্য বাস্তবায়নে সাহায্য করতে পারবে না মন্তব্য করে বক্তারা বলেন, বর্তমানে দেশের মোট জনগোষ্ঠীর ৪৯ শতাংশই তরুণ। যাদের দক্ষতা ও সামর্থ্যের উপর নির্ভর করে গড়ে উঠবে আগামীর ভবিষ্যত। তবে তামাকের কারণেই সম্ভবনাময় এই তরুণ জনগোষ্ঠী দেশের সম্পদ না হয়ে বরং বোঝা হয়ে দাঁড়াতে পারে। তাদেরকে বাদ দিয়ে উন্নত দেশ গড়া কোনো ভাবেই সম্ভব না। আর তাই উন্নত দেশ গড়ে তুলতে হলে আমাদেরকে অবশ্যই তামাকসক্ত যুব সমাজকে রক্ষা করতে হবে। তবেই বাংলাদেশ ২০৪১ সালের মধ্যে বিশে^র কাতারে একটি উন্নত দেশ হিসেবে রুপান্তরিত হবে।

বৃহস্পতিবার (৪ ফেব্রুয়ারি) উপজেলা পরিষদ সভা কক্ষে তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন বাস্তবায়নে উপজেলা টাস্কফোর্স কমিটির সদস্য ও কর্মকর্তাদের নিয়ে তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন বিষয়ক প্রশিক্ষণে এসব কথা বলে বক্তার। মানিকছড়ি উপজেলা প্রশাসন কর্তৃক আয়োজিত প্রশিক্ষণের সহয়োগিতা করেন জাতীয় তামাক নিয়ন্ত্রণ সেল, স্বাস্থ্য বিভাগ, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রাণালয়।

এ সময় বক্তারা আরো বলেন, তামাক সেবনের কারণে পৃথিবীতে প্রতিবছর প্রায় ৭১ লক্ষ নারী-পুরুষ মৃত্যুবরণ করে। এছাড়াও পরোক্ষ ধুমপানের প্রভাবে অধুমপায়ীর হৃদরোগ, ষ্ট্রোক, ক্যান্সারসহ নানা রোগে আক্রান্ত হচ্ছে। বর্তমানে যুব সমাজ মাদক সেবনের দিকে ধাপিত হচ্ছে। যার ফলে বাড়ছে নানা অন্যায় অপরাধ প্রবণতা। তৈরি হচ্ছে কিশোরজ্ঞানের মত অপ্রাপ্ত বয়সী শিশু-কিশোরদের দল। যারা কিনা জড়িয়ে পড়ছে সমাজের বিভিন্ন অন্যায় অপরাধ মূলক কর্মকান্ডে। আজকের শিশুরাই যে আগামীল ভবিষ্যৎ সেটি তারা ভূলে গিয়ে সেই শিশুরাই জড়িয়ে যাচ্ছে সমাজিক অপরাধ মূলক কর্মকান্ডে। বিশেষ করে শিশু-কিশোরদের লক্ষ করে উদ্ভাবনী বিজ্ঞাপন এবং আকর্ষণীয় ডিজাইনে নিত্য নতুন পণ্য বাজারজাতকরণ, সুগন্ধিযুক্ত তামাকপণ্য তৈরি ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের আশপাশের এলাকায় তামাকপণ্য সহজলভ্য করাসহ নানা কৌশল অবলম্বনও করে থাকে কোম্পানীগুলো।

মানিকছড়ি উপজেলা নির্বাহী অফিসার তামান্না মাহমুদ, উপজেলা স্বাস্থ্য ও প: প: কর্মকর্তা ডা. রতন খীসা, অফিসার ইনচার্জ আমির হোসেন, মানিকছড়ি ইউপি চেয়ারম্যান মো. শফিকুর রহমান ফারুকসহ সংশ্লিষ্ট কমিটির সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।