উপজাতীয় শরনার্থী পূনর্বাসন বন্ধের দাবীতে জেলা প্রশাসককে স্মারকলিপি

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি: পার্বত্য চট্টগ্রামে শরণার্থী বিষয়ক টাস্কফোর্সের মাধ্যমে নতুন করে উদ্বাস্তু সাজিয়ে ৮২ হাজার উপজাতি পরিবারকে পূনর্বাসনের ষড়যন্ত্র বন

গুইমারা উপজেলায় মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস পালিত
খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদের নতুন চেয়ারম্যান মংশৈপ্রু চৌধুরী অপু
ঈদ মুবারাক, সবাইকে ঈদ-উল ফিতরের শুভেচ্ছা -সম্পাদক, পাহাড়ের আলো

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি: পার্বত্য চট্টগ্রামে শরণার্থী বিষয়ক টাস্কফোর্সের মাধ্যমে নতুন করে উদ্বাস্তু সাজিয়ে ৮২ হাজার উপজাতি পরিবারকে পূনর্বাসনের ষড়যন্ত্র বন্ধের প্রতিবাদে খাগড়াছড়িতে বিক্ষোভ মিছিল ও জেলা প্রশাসককে স্মারকলিপি দিয়েছে পার্বত্য বাঙ্গালি ছাত্র পরিষদ। একই সাথে পাহাড়ের গুচ্ছগ্রামে বন্দি প্রকৃত আভ্যন্তরীণ উদ্বাস্তু ৩৮ হাজার বাঙ্গালি পরিবারকে পুনর্বাসনের দাবি জানিয়েছে।

রবিবার সকালে শহরের শাপলা চত্ত্বরে পার্বত্য বাঙ্গালি ছাত্র পরিষদের খাগড়াছড়ি জেলা শাখার উদ্যোগে কর্মসূচিতে বক্তারা বলেন, ১৯৯৭ সালে পার্বত্য চট্টগ্রাম চুক্তির ২০ দফা প্যাকেজের আওতায় টাস্কফোর্সের মাধ্যমে ভারত প্রত্যাগত সকল উপজাতীয় শরণার্থীদের যথাযথভাবে পাহাড়ে পুনর্বাসন করা হয়েছে। সর্বশেষ ২০০৮ সালে ২১টি উপজাতীয় শরণার্থী পরিবারকে খাগড়াছড়ির দীঘিনালা উপজেলার জামতলীতে পুনর্বাসন করা হয়। কিন্তু ১৯৯৮ সালের টাস্কফোর্সের ৩য় বৈঠকে ৩৮ হাজার ১৫৬টি বাঙ্গালি আভ্যান্তরীণ উদ্বাস্তু পরিবারের তালিকা অনুমোদন দেয়ার পরও অদ্যবধি পুনর্বাসনের উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়নি।