কাপ্তাইয়ে পাহাড় ধ্বসে ২ জন নিহত, যান চলাচল বন্ধ

শান্তি রঞ্জন চাকমা, রাঙ্গুনিয়া: কাপ্তাইয়ের রাইখালী ইউনিয়নের কারিগর পাড়ায় গতকাল শনিবার চলন্ত সিএনজি গাড়ির উপর পাহাড় ধ্বসে রাউজানের নোয়াপাড়ার অতল বড়ুয়া (৫০), কাড়িগর পাড়ার সুইলাউ মার্মা (৪০) নামের দু’জন নিহত হয়েছে। এ সময় আরো ৫ যাত্রী আহতের খবর পাওয়া গেছে। সীতার ঘাট এলাকায় পাহাড় ধ্বসের কারনে কাপ্তাই-চট্টগ্রাম সড়কের প্রায় ৬ ঘন্টা সড়ক যোগযোগ বন্ধ হয়ে যায়। এসময় যাত্রীদের চরম দূর্ভোগের পোহাতে হয়েছে।

জানা যায়, উপজেলার রাইখালীর কাড়িগর পাড়া এলাকায় নিহত বাগান মালিক অতল বড়ুয়া তার বাগানের কেয়ারটেকার সুইলাউ মার্মা ও তার স্ত্রীকে নিয়ে বাগান দেখতে যাচ্ছিলেন। বিকটশব্দে হঠাৎ পাহাড় ধস হলে এই দুইজন মাটির নিচে চাপা পড়ে যায়। এবং বাঙ্গালহালিয়া-চন্দ্রঘোনা সড়কে চলাচলরত একটি সিএনজি ৪ জন আরোহী সহ মাটির নিচে চাপা পড়ে। সিএনজি আরোহীদের কে উদ্ধার করে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হলেও বাকী দুইজন মাটির নিচে চাপা পড়ে ঘটনাস্থলে নিহত হয়। এদিকে ঘটনার সংবাদ পেয়ে কাপ্তাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আশ্রাফ আহমেদ রাসেল, রাইখালী ইউপি ভারপ্রাপ্ত চেয়্যারম্যান মো. এনামুল হক, রাইখালী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. ইউসুফ কারবারী ঘটনাস্থলে ছুঁটে যান এবং শতশত এলাকাবাসীকে নিয়ে উদ্ধার কার্যক্রম চালান।

ঘটনার খবর পেয়ে রাঙ্গুনিয়া ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট ঘটনাস্থলে রওনা হলেও চন্দ্রঘোনা রাইখালী ফেরিঘাটে অতিরিক্ত পানি থাকায় ফেরীঘাট থেকে ফিরে আসেন। চট্টগ্রাাম-কাপ্তাই সড়কে বালুর চর সীতার ঘাট বৈদ্যুতিক খূঁটি সহ বিশাল আকৃতির পাহাড় ধ্বস হয়েছে। সকাল ৯টা-৩টা পর্যন্ত প্রায় ৬ ঘন্টা বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে যোগাযোগ ব্যবস্থা। কাপ্তাই ফায়ার সার্ভিস, কাপ্তাই নৌ স্কাউটসের শতাধিক সদস্য এবং রেড ক্রিসেন্টের কর্মীরা পাহাড়ের মাটি সরিয়ে নিলে বিকালে যান চলাচল স্বাভাবিক হয়। ১নং চন্দ্রঘোনা ইউনিয়নের নালন্দা বিহার সংলগ্ন বড়ুয়া পাড়া এলাকায় পাহাড়ের পাদদেশে ঝুঁকিপূর্ণ বসবাসকারী প্রায় ১৫ টি পরিবারকে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আশ্রাফ আহমেদ রাসেল চন্দ্রঘোনা ইউনিয়ন পরিষদের আশ্রয়কেন্দ্রে নিয়ে আসেন।

পাহাড়ের আলো

https://pahareralo.com

সর্বাধিক জনপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল। সর্বশেষ সংবাদ সবার আগে জানতে চোখ রাখুন পাহাড়ের আলোতে।

Related post