খাগড়াছড়িখাগড়াছড়ি সংবাদপাহাড়ের সংবাদশিরোনামস্লাইড নিউজ

খাগড়াছড়িতে আন্তর্জাতিক নারী দিবস পালন

স্টাফ রিপোর্টার: খাগড়াছড়িতে নানা অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে ৮মার্চ আন্তর্জাতিক নারী দিবস  পালিত হয়েছে।

দিবসটি পালন উপলক্ষ্যে খাগড়াছড়ি জেলা প্রশাসন, জেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর, খাগড়াপুর মহিলা কল্যাণ সমিতি ও বাংলাদেশ নারী প্রগতি সংঘ’র যৌথ উদ্যোগ সারাদিন ব্যাপি বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে পালিত হয়েছে। বিকাল ৩টায় সদর উপজেলা মাঠ থেকে শোভাযাত্রা বের করা হয়। সদর উপজেলা হয়ে ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর সাংস্কৃতিক ইনস্টিটিউট প্রাঙ্গণে এসে শোভাযাত্রা শেষ হয়। শোভাযাত্রা শেষে ইনস্টিটিউট অডিটোরিয়ামে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। দিবসের প্রতিপাদ্যের মূল বিষয় ছিলো “করোনা কালে নারী নেতৃত্ব, গড়বে সমতা ভবিষ্যৎ নতুন বিশ্ব” “সকল মানুষের সমভবিষৎ নির্মাণে নারী নেতৃত্ব”।

এদিন ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর সাংস্কৃতিক ইনস্টিটিউট অডিটোরিয়ামে নারীর ক্ষমতায়নে বঙ্গবন্ধুর অবদান শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, খাগড়াছড়ি জেলা প্রশাসক প্রতাপ চন্দ্র বিশ্বাস। প্রধান অতিথি বক্তব্যে বলেন, সমতলের নারী ও পাহাড়ের নারীদের পার্থক্য রয়েছে। খুব অল্প বয়সে এখানকার নারীরা পাত্রস্থ লাভ করে। কোন না কোন কারণে হয়তো এমনটা হচ্ছে। এই বাল্যবিবাহ রোধের একমাত্র উপায় নারীদের সঠিক শিক্ষায় শিক্ষিত হওয়া। শিক্ষাই একমাত্র বাল্যবিবাহ রোধ করতে হবে। তিনি জেলাবাসীকে নারী দিবসের শুভেচ্ছা জানান।ৎ

খাগড়াপুর মহিলা কল্যাণ সমিতির PC গীতিকা ত্রিপুরার সঞ্চালনায়, বিশেষ অতিথি ছিলেন খাগড়াছড়ি পৌরসভা মেয়র নির্মলেন্দু চৌধুরী, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ শানে আলম, সদর উপজেলা ইউএনও মাহফুজা মতিন, খাগড়াছড়ি জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জিনিয়া চাকমা, পার্বত্য জেলা পরিষদ সদস্য শতরুপা চাকমা সহ আরো অনেকে।

খাগড়াছড়ি মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের পরিচালক মহিউদ্দিন আহমেদ এর সভাপতিত্বে বক্তারা বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার যোগ্য নেতৃত্বে সারাদেশে এখন নারীরা প্রত্যেকটি কাজে, কর্মে, যেকোন পেশায় দ্রুততার সাথে এগিয়ে চলছে তাদের নিজ নিজ দক্ষতা ও মনোবলের মাধ্যমে। তারা বলেন, নারীরা এগিয়ে গেলে বঙ্গবন্ধু সোনার বাংলা গঠনে আরো একধাপ এগিয়ে যাবে।

বাংলাদেশের নারীরা ১৯৫৭ সালে ৮ মার্চ মজুরী বৈষম্য কর্মঘন্টা নির্ধারণ এবং কর্মক্ষেত্রের বৈরী পরিবেশের প্রতিবাদ করেন, যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কের সুতা কারখানার একদল শ্রমজীবী নারী। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে তাদের ওপর দমন পীড়ন চালায় মালিক পক্ষ। এই দিন কে সম্মান জানিয়ে ৮ই মার্চ আন্তর্জাতিক নারী দিবস পালিত হয়ে থাকে প্রতিবছর।