খাগড়াছড়িতে করোনায় আরো একজনের মৃত্যু, নতুন আক্রান্ত ৪৩জন

স্টাফ রিপোর্টার: খাগড়াছড়ি জেলার মাটিরাঙ্গা উপজেলায় জামিনা খাতুন (৮০) নামে এক নারী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। ৭ জুলাই সকাল ১০টার দিকে ভুইয়

মিঠুন চাকমা হত্যাকারীদের গ্রেফতারে ইউপিডিএফ‘র নতুন কর্মসূচি
খাগড়াছড়ি পৌর নির্বাচনে মেয়র পদে মনোনয়ন ফরম নিলেন বিএনপির প্রার্থী ইব্রাহিম খলিল
লক্ষ্মীছড়ি জেএসএস’র সভাপতি ধীমান চাকমা প্রতিপক্ষের গুলিতে আহত, চমেক প্রেরণ

স্টাফ রিপোর্টার: খাগড়াছড়ি জেলার মাটিরাঙ্গা উপজেলায় জামিনা খাতুন (৮০) নামে এক নারী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। ৭ জুলাই সকাল ১০টার দিকে ভুইয়াপাড়ার নিজ বাড়িতে মৃত্যুবরণ করেন। মৃত জামিনা খাতুন মাটিরাঙ্গা পৌরসভার ৮ননং ওয়ার্ডের ভুইয়াপাড়া এলাকার মৃত: নুর মিয়া সর্দারের স্ত্রী। নিহতের বড় মেয়ে়র জামাতা মো. আব্দুল মমান্নান (মনু লিডার) তাঁর মৃত্যুর বিষয়টি সাংবাদিকদের কাছে নিশ্চিত করেছেন।

নিহতের ছেলে মো. জয়নাল আবেদীন জানান, গত শনিবার (৩ জুলাই) জামিনা খাতুনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়। এরপরপরই ওই নারী খাগড়াছড়ি জেলা সদর হাসপাতালের আইসোলেশনে ভর্তি ছিলেন। অবস্থার অবনতি ঘটলে মঙ্গলবার (৭ জুলাই) সকালের দিকে তাকে মাটিরাঙ্গার নিজ বাড়িতে নিয়ে আসা হলে সকাল সাড়ে ১০টার দিকে তার মৃত্যু হয় ।

এদিকে মাটিরাঙ্গা উপজেলা প্রশাসনের তত্ত্বাবধানে যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মেনে মাটিরাঙ্গা পৌরসভার ২নং ওয়ার্ডের নতুনপাড়া কবরস্থানে তার লাশ দাফন করার কথা জানান ২নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোহাম্মদ আলী।

মাটিরাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী অফিসার (অ.দা) ফারজানা আক্তার ববি বলেন, করোনায় আক্রান্ত হয়ে ওই নারী মারা যাওয়ার পরে প্রশাসনের পক্ষ থেকে সবধরনের পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে। নিহতের পরিবারের সদস্যদের করোনা পরীক্ষার আওতায় আনা হবে জানিয়ে তিনি সকলকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহবান জানান। জেলায় এ নিয়ে মৃত্যুে সংখ্যা দাঁড়ালো দুইয়ে। ৬ জুলাই মঙ্গরবার সকাল ৮টার দিকে দীঘিনালা উপজেলাধীন হাসেনসনপুর এলাকার মৃত আঃ আজিজ এর স্ত্রী সুর্যবানু বিবি (৮৫)। জেলা সদর হাসপাতালে করোনায় মারা যায়।

এদিকে খাগড়াছড়িতে নতুন আক্রান্ত ৪৩জন। গত ২৪ ঘণ্টায় ৯৭টি নমুনা পরীক্ষা করে ৪৩ জনের করোনা শনাক্ত করা হয়েছে। পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ৪৪ দশমিক ৩৩ শতাংশ। বুধবার জেলা সিভিল সার্জন ডাঃ নুপুর কান্তি দাশ এ খবর নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত ৪৩ জনের মধ্যে ১৭ জন খাগড়াছড়ি সদরের, ১৭ জন মাটিরাঙ্গার, ২ জন মানিকছড়ির, ২জন পানছড়ির, ৫ জন দীঘিনালার। তিনি আরও জানান, জেলায় এখন পর্যন্ত ৮ হাজার ৫৭৩টি নমুনা পরীক্ষা করে ১ হাজার ৪০৯ জনের করোনা শনাক্ত করা হয়েছে। সনাক্তের হার ১৬ দশমিক ৫৪ শতাংশ।

জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়ের তথ্য অনুযায়ী, চলতি মাসে ৬৭৭ জন করোনা পরীক্ষা করেছেন। তারমধ্যে আক্রান্ত ২৪৯ জন। শনাক্তের হার ৩৬ দশমিক ৭৮ শতাংশ। বর্তমানে ৩৬জন খাগড়াছড়ি সদর হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। তারমধ্যে পজিটিভ রোগীর সংখ্যা ১৮ জন, সন্দেহজনক রোগীর সংখ্যা ১৮ জন।

এদিকে জেলায় করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় আতঙ্কিত না হয়ে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার নির্দেশনা দিয়েছে স্বাস্থ্য বিভাগ।