খাগড়াছড়িতে পিতা-পুত্রসহ তিন জনকে অপহরণের নিন্দা

ডেস্ক রিপোর্ট: ইউনাইটেড পিপল্স ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউপিডিএফ) খাগড়াছড়ি জেলা ইউনিটের প্রধান সংগঠক ও কেন্দ্রীয় সদস্য সচিব চাকমা আজ ২৩ এপ্রিল সোমবার এক বি

নির্বাচনে ফলাফল জালিয়াতি করে নৌকাকে ফেল করানোর অভিযোগে আ.লীগ প্রার্থীর সংবাদ সম্মেলন
গুইমারাতে বিশ্ব পানি দিবস পালিত
মানিকছড়িতে অবৈধ বালু মহালে লক্ষাধিক টাকা জরিমানা

ডেস্ক রিপোর্ট: ইউনাইটেড পিপল্স ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউপিডিএফ) খাগড়াছড়ি জেলা ইউনিটের প্রধান সংগঠক ও কেন্দ্রীয় সদস্য সচিব চাকমা আজ ২৩ এপ্রিল সোমবার এক বিবৃতিতে খাগড়াছড়ির কমলছড়ি ইউনিয়নের বেতছড়ির সাজেক পাড়া থেকে গতকাল জেএসএস সংস্কারবাদী গ্রুপ কর্তৃক পিতা-পুত্রসহ তিন নিরীহ গ্রামবাসীকে অপহরণের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ এবং অবিলম্বে তাদেরকে অক্ষত অবস্থায় মুক্তি দেয়ার দাবি জানিয়েছেন। ইউপিডিএফ প্রচার ও প্রকাশনা বিভাগ নিরন চাকমা স্বাক্ষরিত এক প্রেসবার্তায় এ নিন্দা জানানো হয়েছে।

সংস্কারবাদীদের প্রতি খুন ও অপহরণের রাজনীতি বন্ধ করে জনগণের আন্দোলনে সামিল হওয়ার আহ্বান জানিয়ে ও ঘটনার বর্ণনা দিয়ে ইউপিডিএফ নেতা বলেন, গতকাল রবিবার বিকেল ৩টার দিকে নিজ বাড়ি থেকে ৬০-বছরের বৃদ্ধ বিদুৎ বরণ চাকমা, তার ছেলে রিপন চাকমা (২৮) ও একই গ্রামের বিমল চাকমার ছেলে ভূবন মোহন চাকমাকে (৪০) অস্ত্রের মুখে অপহরণ করা হয়।

সচিব চাকমা বলেন, সেনাবাহিনী জেল-জুলুম দিয়ে ইউপিডিএফ-এর নেতৃত্বে পরিচালিত গণআন্দোলনকে দমন করতে ব্যর্থ হওয়ার পর বর্তমানে সংস্কারবাদী ও নব্য মুখোশ বাহিনীকে দিয়ে ইউপিডিএফ-এর নেতা, কর্মী, সমর্থক ও সাধারণ লোকজনকে খুন ও অপহরণ যজ্ঞে মেতে উঠেছে।

‘কিন্তু কোন ধরনের এবং কোন মাত্রার দমনপীড়ন চালিয়ে ইউপিডিএফ-এর আন্দোলনকে স্তব্ধ করা যাবে না’ বলে মন্তব্য করেতিনি বলেন, সন্ত্রাস দিয়ে পার্বত্য চট্টগ্রামের জনগণকে চিরকাল ভীত-সন্ত্রস্ত করে রাখা যাবে না। জনগণ অবশ্যই সংস্কারবাদী ও নব্য মুখোশ বাহিনীকে দিয়ে আন্দোলন দমনের সেনা-ষড়যন্ত্র নস্যাত করে দেবেন।