খাগড়াছড়িখাগড়াছড়ি সংবাদপাহাড়ের সংবাদশিরোনামস্লাইড নিউজ

খাগড়াছড়িতে ৩ সংগঠনের ডাকা অবরোধ পালিত

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি: খাগড়াছড়িতে সশস্ত্র দুর্বৃত্তদের ব্রাশ ফায়ারে ইউপিডিএফ সমর্থিত পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের ভারপ্রাপ্ত জেলা সভাপতি তপন চাকমাসহ দলীয় নেতাকর্মী ও পথচারীদের মৃত্যুর প্রতিবাদে ২০ আগস্ট সোমবার জেলায় আধাবেলা  সড়ক অবরোধ কর্মসূচি শান্তিপুর্ণভাবে পালিত হয়েছে। ইউপিডিএফ সমর্থিত পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ, হিল উইমেন্স ফেডারেশন ও গণতান্ত্রিক যুব ফোরাম এ অবরোধের ডাক দেয়।

অবরোধের কারণে খাগড়াছড়ির সকল সড়কে যানবাহন চলাচল বন্ধ ছিল। ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা নৈশকোচগুলো পুলিশী প্রহরায় খাগড়াছড়িতে প্রবেশ করলেও জেলার অভ্যন্তরীন ও দুরপাল্লার সড়কে কোন যানবাহন ছেড়ে যায়নি। পেরাছড়াসহ পানছড়ি সড়কে পিকেটিং এর খবর পাওয়া গেলেও শহর, শহরতলীর কোথাও অবরোধ আহবানকারীদের দেখা যায়নি। অবরোধে যে কোন ধরণের অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে শহরে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করার কথা জানান সদর থানার ওসি শাহাদাত হোসেন টিটু। পুলিশের পাশাপাশি বিভিন্ন স্থানে বিজিবি সদস্যরাও নিয়োজিত থাকে। এছাড়া সেনাবাহিনীকে টহল দিতে দেখা গেছে।

শনিবার শহরের অদূরে স্বনির্ভর বাজারে দুর্বৃত্তদের ব্রাশ ফায়ারে ইউপিডিএফ সমর্থিত দুটি পাহাড়ি সংগঠনের ৩ নেতাসহ মোট ৬জন নিহত ও আরো ৩জন গুলিবিদ্ধ হয়। একইদিন দুপুরে পেরাছড়ায় পৃথক ঘটনায় আহত ছন কুমার চাকমাও চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। ইউপিডিএফ ঘটনার জন্য সংস্কারপন্থী বলে পরিচিত জনসংহতি সমিতিকে দায়ী করেছে। যদিও জনসংহতি সমিতি এ ঘটনায় তাদের জড়িত থাকার কথা অস্বীকার করেছে।