খাগড়াছড়িখাগড়াছড়ি সংবাদগুইমারাপাহাড়ের সংবাদমানিকছড়িলক্ষ্মীছড়িশিরোনামস্লাইড নিউজ

গাড়ি ভাংচুর, মারধর টায়ার জ্বালানোর মধ্য দিয়ে খাগড়াছড়িতে সড়ক অবরোধ চলছে

স্টাফ রিপোর্টার:  অপহৃত হিল উইমেন্স ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক মন্টি চাকমা ও রাঙামাটি জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক দয়া সোনা চাকমার মুক্তি দাবীতে গাড়ি ভাংচুর, মারধর টায়ার জ্বালানোর মধ্য দিয়ে ইউপিডিএফ সমর্থিত তিন সংগঠনের ডাকে খাগড়াছড়িতে সকাল-সন্ধ্যা সড়ক অবরোধ চলছে। ২১ মার্চ বুধবার সকাল থেকে অবরোধের সমর্থনে রাস্তায় টায়ার জ¦ালিয়ে ও গাছ ফেলে পিকেটিং করছে ইউপিডিএফ’র নেতাকর্মীরা। তবে জেলার কোথাও বড় ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায় নি।

মানিকছড়িতে অবরোধের সমর্থনে বিআরটিসির একটি মালবাহী ট্রাক চট্রগ্রাম হতে খাগড়াছড়ি যাওয়ার পথে মানিকছড়ি পিচলাতলা নামক স্থানে ইউপিডিএফ পিকেটাররা গাড়ির গ্লাস ভাঙে ও ড্রাইভারকে মারধর করে। ড্রাইভার মানিকছড়ি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে বলে জানা গেছে।

মানিকছড়ি প্রতিনিধি জানান, সড়ক অবরোধকারীরা সকালে মানিকছড়ি জামতল (পিচলাতলা) এলকায় সকাল ৬.৩০মিঃ চট্টগ্রাম থেকে আসা চট্টমেট্টো-ট ১১-১৩৫২ ট্রাক গাড়ীটি ভাংছুর করেন পিকেটাররা, আহত হয় গাড়ীর চালক ড্রাইভার মোঃ আবুল কাশেম(৪৫)। আবুল কাশেম জানান গাড়ী নিয়ে খাগড়াছড়ির উদ্দেশ্যে রওনা হলে জামতল(পিচলাতলা) এলাকায় তার গাড়ী ইটের আদলা মারতে থাকে। গাড়ী থামালে  তাকে মারধর ও গাড়ীটি গ্লাস ভেঙ্গে ফেলে। আহত ড্রাইভার মানিকছড়ি হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছে বলে জানা গেছে।

মানিকছড়ি থানা অফিসার ইনচার্জ(ওসি) মুহাম্মদ রশীদ জানান, ঘটনা শুনার পর পর ঘটনাস্থল থেকে গাড়ী ও ড্রাইভার কে উদ্বার করা হয়েছে। গাড়ীটি থানায় হেফাজতে ড্রাইভার চিকিৎসা দিন আছে। এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত কাউকে আটক করা হয় নাই।

গুইমারা বাইল্যাছড়ি এলাকায় টহল করার সময় এস আই জাহাঙ্গীর এর নেতৃত্বে টহল দল চায়ের দোকানে বসা অবস্খায় হরতালকারী একদল যুবক অতর্কিত ভাবে হামলা চালায়।   এতে উত্তম নামের এক কনষ্টেবল গুরুতর আহত হয় তার চোখের ব্রুতে গুলি/ গুলতি বা মারবেল এর আঘাত লাগে বলে ওসি জানান। গুইমারা সিএমএইচ এ ভর্তি করে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে বলে জানা গেছে।

লক্ষ্মীছড়ি-মানিকছড়ি সড়কে মংহ্লাপাড়া নামক স্থানে রাস্তার উপরে অবরোধকারীরা টায়ারে আগুন দেয় এবং জীপ গাড়ির গ্লাস ভেঙ্গে দেয়। লেমুয়া রাঙ্গাপানি নামক এলাকায় টায়ার জ্বালিয়ে অপরোধ করা হয়। এছাড়াও ৩টি অটোবাইক এবং মোটর সাইকেল ভাংচুরের খবর পাওয়া গেছে।
অবরোধের কারণে বুধবার সকালে পুলিশ প্রহরায় ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা নৈশ কোচগুলো শহরে প্রবেশ করলেও জেলার আভ্যন্তীরন ও দুর পাল্লা সড়কে যানবাহন চলাচল বন্ধ রয়েছে। অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা টহল দিচ্ছে।

১৮ মার্চ রাঙামাটি সদর উপজেলার কুদুকছড়ির আবাসিক এলাকা থেকে এ দুই নারী নেত্রীকে প্রতিপক্ষের সন্ত্রাসীরা অস্ত্রের মুখে অপহরণ করে নিয়ে যায়। এ সময় সন্ত্রাসীদের গুলিতে গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের রাঙামাটি জেলা আহ্বায়ক ধর্মশিং চাকমা পায়ে গুলিবিদ্ধ হয়।

এ ঘটনার প্রতিবাদে প্রসীত খীসা নেতৃত্বাধীন ইউপিডিএফ সমর্থিত তিন সংগঠন গণতান্ত্রিক যুব ফোরাম, পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ ও হিল উইমেন্স ফেডারেশন যৌথভাবে এ এ অবরোধ কর্মসূচি ঘোষণা করে।

ইউপিডিএফ(প্রসীত) গ্রুপ দুই নারী নেত্রীকে অপহরণের ঘটনার জন্য ইউপিডিএফ-গণতান্ত্রিকের নেতৃত্বকে দায়ী করলেও ইউপিডিএফ-গণতান্ত্রিকের আহবায়ক তপন জ্যোতি চাকমা বর্মা ও সদস্য সচিব জলেয়া চাকমা তরু এ অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, প্রসীতের ইউপিডিএফ’র আভ্যন্তরীন কোন্দলে এ ঘটনা ঘটেছে।