গুইমারাতে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে ক্রীড়া সামগ্রী ও সাংস্কৃতিক সরঞ্জাম বিতরণ

স্টাফ রিপোর্টার: পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অর্থায়নে পার্বত্য জেলা পরিষদ খাগড়াছড়ি এর সার্বিক সহযোগীতায় গুইমারা উপজেলায় বিভিন্ন শিক্ষা, সামা

১০ হাজার গরীব ও দুস্থ পরিবারকে সাহার্য করার পরিকল্পনা নিয়েছে খাগড়াছড়ির পার্বত্য জেলা পরিষদ
ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের অর্থায়নে দিনব্যাপী কর্মশালা গুইমারায়
মহালছড়িতে কমিউনিটি পুলিশিং ডে উপলক্ষে র‌্যালি ও আলোচনা

স্টাফ রিপোর্টার: পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অর্থায়নে পার্বত্য জেলা পরিষদ খাগড়াছড়ি এর সার্বিক সহযোগীতায় গুইমারা উপজেলায় বিভিন্ন শিক্ষা, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের মাঝে ক্রীড়া সামগ্রী ও সাংস্কৃতিক সরঞ্জামাদি বিতরণ করা হয়েছে। ২৫ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার বিকেলে খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরী প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এসব সামগ্রী বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান প্রধানের হাতে তুলে দেন।

গুইমারা উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে প্রয়াত মংসাজাই চৌধুরী স্মৃতি(অনুর্ধ্ব-১৮)গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট’১৮খ্রিঃ এর উদ্ধোধনী ম্যাচের মধ্য বিরতিতে গুইমারা উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও সদর ইউপি চেয়ারম্যান মেমং মারমার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ বিতরণী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির আসন অলংকৃত করেন, খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদের মুখ্য নির্বাহী কর্মকর্তা(যুগ্ম সচিব) মোঃ নূরুজ্জামান, সিন্দুকছড়ি সেনা জোন কমান্ডার লেঃ কর্ণেল রুবায়েত মাহমুদ হাসিব পিএসসি জি, গুইমারা উপজেলা নির্বাহী অফিসার পঙ্কজ বড়ুয়া।

প্রধান অতিথি’র বক্তব্যে কংজরী চৌধুরী বলেন, নবসৃষ্ট গুইমারা উপজেলা এখনো জেলার অন্য উপজেলাগুলোর তুলনায় অনুন্নত ও সমান সুযোগ সুবিধা থেকে বঞ্চিত। গুইমারাকে একটি আধুনিক উন্নত ও সর্বক্ষেত্রে শ্রেষ্ঠতর মডেল উপজেলা হিসেবে গড়ে তুলতে সকলকে একযোগে কাজ করতে হবে। শিক্ষার পাশাপাশি ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক অঙ্গনে চর্চা বাড়ানোর উপর জোর দিয়ে তিনি আরো বলেন, বর্তমানে বাংলাদেশ উন্নয়নের মহাসড়কে অবস্থান করছে মধ্যম আয়ের দেশ বাংলাদেশের নবীন উপজেলা হিসেবে গুইমারাকে বিশ্ব দরবারে পরিচিত করাতে উপজেলাবাসীকেই দায়িত্ব নিয়ে কাজ করতে হবে।

এসময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, গুইমারা থানার অফিসার ইনচার্জ মুহাম্মদ গিয়াস উদ্দিন, হাফছড়ি ইউপি চেয়ারম্যান চাইথোয়াই চৌধুরী, সিন্দুকছড়ি ইউপি চেয়ারম্যান রেদাক মারমা, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার ম্রাসাথোয়াই মগ, গুইমারা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সুশীল রঞ্জন পাল সহ এলাকার জনপ্রতিনিধি, হেডম্যান-কারবারী ও গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ। ৩টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সহ বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠানে, হারমোনিয়াম,তবলা, ক্রিকেট ব্যাট, ফুটবল, ভলিবল, সহ যাবতীয় সরঞ্জামাদি বিরতণ করা হয়।