খাগড়াছড়িখাগড়াছড়ি সংবাদগুইমারাপাহাড়ের সংবাদস্লাইড নিউজ

গুইমারা উপজেলায় মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস পালিত

স্টাফ রিপোর্টার: ৩১বার তপোধ্বনী, শহীদ মিনারে পুষ্পমাল্য অর্পন, র‌্যালি আলোচনা সভা মুক্তিযোদ্ধা সম্মাননা সহ নানা আয়োজন, বিন¤্র শ্রদ্ধা, ভালবাসা ও যথাযোগ্য মর্যাদায় খাগড়াছড়ি’’র  গুইমারাতে পালিত হয়েছে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস।  বিস্তারিত কর্মসুচী ও নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে উপজেলাবাসী স্মরণ করল জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান মুক্তিযুদ্ধের বীর সেনানীদের। প্রতুষ্যে ৩১বার তোপধ্বনীর মধ্য দিয়ে শুরু হয় দিবসের আনুষ্ঠানিকতা। গুইমারা উপজেলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পঙ্কজ বড়–য়া মুক্তিযোদ্ধাদের সাথে নিয়ে ভোর ৬.০১ঘটিকায় গুইমারা মডেল উচ্চ বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে শহীদ মিনারে পুষ্পমাল্য অর্পনের মাধ্যমে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। গুইমারা উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ড, গুইমারা উপজেলা আওয়ামীলীগ ও সকল সহযোগী সংগঠন, বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি)গুইমারা উপজেলা শাখাসহ বিভিন্ন জাতীয় রাজনৈতিক দল ছাড়াও সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন, স্কুল, কলেজ ও মাদ্রাসার পক্ষ থেকে শহীদদের শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

গুইমারা মডেল উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে সারা দেশের সাথে সকাল ৮টায় সমবেত কষ্ঠে জাতীয় সঙ্গীতের মাধ্যমে স্বাধীনতা দিবসের আনুষ্ঠানিক জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়। বাংলাদেশ পুলিশ, আনসার-ভিডিপি, গুইমারা কলেজ, গুইমারা মডেল উচ্চ বিদ্যালয়, গুইমারা মাদ্রাসা, ও গুইমারা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ক্ষূদে ছাত্র-ছাত্রীদের সমন্বয়ে কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠিত হয়। গুইমারা থানাধীন হাফছড়ি পুলিশ ফাঁড়ির উপ-পুলিশ পরিদর্শক মহিউদ্দীনের নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত প্যারেডে অভিবাদন ও সালাম গ্রহণ করেন গুইমারা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পঙ্কজ  বড়ুয়া। এসময় অভিবাদন মঞ্চে গুইমারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ গিয়াস উদ্দিন উপস্থিত ছিলেন।

দুপুর ১২টায় গুইমারা উপজেলা পরিষদের সম্মেলন কক্ষে শহীদ পরিবার ও বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মাননা প্রদান করা হয়। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পঙ্কজ বড়–য়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সম্মাননা অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রামগড় সার্কেল সৈয়দ ফরহাদ হোসেন, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ঝর্না ত্রিপুরা, গুইমারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ গিয়াস উদ্দিন, গুইমারা উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মোঃ জাহাঙ্গীর আলম, সাধারণ সম্পাদক ও ইউপি চেয়ারম্যান মেমং মারমা, মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার ¤্রসাথোয়াই মগ, গুইমারা কলেজ অধ্যক্ষ মোঃ নাজীম উদ্দিন, গুইমারা মাদ্রাসার সুপার জায়নুল আবদীনসহ ৫১জন মুক্তিযোদ্ধা ও শহীদ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সদস্যবৃন্দ। বিকেলে স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে ক্রীড়া প্রতিযোগীতা ও প্রীতি ফুটবল ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়।