পাহাড়ের সংবাদমিডিয়া সংবাদরাঙ্গামাটি সংবাদশিরোনামস্লাইড নিউজ

চাঁদাবাজির অডিও কল ফাঁস, অবজারভার’র রাঙামাটি প্রতিনিধিকে অব্যাহতি

রাঙামাটি প্রতিনিধি: সাংবাদিকতার নাম ভাঙ্গিয়ে রাঙামাটির কাঠ ব্যবসায়ী শাওন নামের এক ব্যক্তির কাছ থেকে চাঁদা আদায়ের অডিও কল রেকর্ড সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফাঁস হওয়ায় “দি ডেইলি অবজারভার” এর রাঙামাটি প্রতিনিধি ইমতিয়াজ কামাল ইমনকে নবসৃষ্ট রাঙামাটি প্রেসক্লাব থেকে অব্যাহতি দিয়েছে সংগঠনটি। সোমবার (০২আগষ্ট) সংগঠনটির সভাপতি সুশীল প্রসাদ চাকমা স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তি গণমাধ্যমে পাঠিয়ে অব্যাহতির বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়।

সংগঠনটির সভাপতি সুশীল প্রসাদ চাকমা বলেন, দ্যা ডেইলী অবজারভার এর রাঙামাটি প্রতিনিধি ইমতিয়াজ কামাল ইমন রাঙামাটিতে কর্মরত স্বনামধন্য সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে মানহানিকর লেখালেখি করছে। তার এসব অপকর্ম আমাদের সংগঠনের সুনাম ক্ষুন্ন করছে। যে কারণে আমরা সংগঠন থেকে তাকে অব্যাহতি দিয়েছি।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, শাওন নামের এক কাঠ ব্যবসায়ীর কাছ থেকে দ্যা ডেইলী অবজারভার এর রাঙামাটি প্রতিনিধি ইমতিয়াজ কামাল ইমন এর চাঁদা আদায়ের কথোপোকথনের একটি অডিও কল রেকর্ড সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। ওই অডিও কল রেকর্ডে ইমতিয়াজ কামাল ইমন বাংলাদেশ বেতার রাঙামাটি প্রতিনিধি ও নবগঠিত রাঙ্গামাটি প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক নন্দন দেবনাথের পক্ষে চাঁদা আদায়ের সমন্বয়কারীর ভূমিকা রাখে। (অডিও কল রেকর্ডটি আমাদের কাছে সংরক্ষিত আছে)

এদিকে সম্প্রতি ইমতিয়াজ কামালের বিরুদ্ধে রাঙামাটিতে কর্মরত সাংবাদিক আলমগীর মানিক ও সাংবাদিক জাহেদা বেগমের বিরুদ্ধে নিজের ফেসবুক ওয়াল ও বিভিন্ন ফেইক আইডি ব্যবহার করে ফেসবুকে নানা অপপ্রচার ও মানহানিকর তৎপরতা চালানোর অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় অবজারভার এর প্রতিনিধি ইমতিয়াজ কামাল ইমনের বিরুদ্ধে রাঙামাটি কোতয়ালী থানায় জিডি করেছেন বাংলাদেশ টেলিভিশন (বিটিভি) এর রাঙামাটি প্রতিনিধি জাহেদা বেগম।

রাঙামাটি কোতয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কবির হোসেন অভিযোগ পাওয়ার সত্যতা নিশ্চত করেছেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ইমতিয়াজ কামাল ইমন ও তার বড় ভাই ইশতিয়াক কামাল মুন্না সাংবাদিকতার নাম ভাঙ্গানোর পাশাপাশি পুলিশের গোয়েন্দা সংস্থা ডিটেকটিভ ব্রাঞ্চ (ডিবি) এর নাম ভাঙ্গিয়ে জেলার স্থানীয় আবাসিক হোটেল এবং বিভিন্ন ব্যবসায়ীর কাছ থেকে চাঁদা আদায় করে থাকে। ( হোটেলের সিসিটিভির ভিডিও ফুটেজ আমাদের কাছে সংরক্ষিত আছে)। পাশাপাশি তারা করছেন রমরমা মাদক ব্যবসা; এমন অভিযোগ স্থানীয়দের।

দ্যা ডেইলী অবজারভার এর রাঙামাটি প্রতিনিধি ইমতিয়াজ কামাল ইমন এসব অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, আমি রাঙামাটি প্রেসক্লাবের বিরুদ্ধে ফেসবুকে লেখালেখির কারণে আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে। ফাঁস হওয়া অডিও কলটি তার নিজের স্বীকার করে বলেন, কলটি ছিলো তার বন্ধু শাওনের সাথে। তার কলরেকর্ডটিতে চাঁদাবাজির কথা এডিট করে দেয়া হয়েছে বলে তিনি দাবি করেন।