তিন পার্বত্য জেলায় আরও ৪ টি জেলা ঘোষণা করে ৭ টি সংসদীয় আসন নিয়ে পার্বত্য চট্টগ্রামকে বিভাগ প্রতিষ্ঠা করুন

আলহাজ্ব এ,কে,এম মকছুদ আহমেদ: প্রশাসনিক জটিলতা দুর করতে এবং শান্তি শৃঙ্খলা রক্ষার্থে তিন পার্বত্য জেলায় আরও ৪ টি নতুন জেলা ঘোষণা করে, ৭ টি সংসদীয় আসন

খাগড়াছড়ি সদর জোনের উদেোগে কর্মহীন-অসহায়দের মানবিক সহায়তা
লক্ষ্মীছড়ি জেএসএস’র সভাপতি ধীমান মানিকছড়িতে দুবৃত্তের গুলিতে আহত, বিস্তারিত আসছে…
মানিকছড়িতে শিশু ধর্ষণ মামলার আসামী আনু মিয়া গ্রেফতার

আলহাজ্ব এ,কে,এম মকছুদ আহমেদ: প্রশাসনিক জটিলতা দুর করতে এবং শান্তি শৃঙ্খলা রক্ষার্থে তিন পার্বত্য জেলায় আরও ৪ টি নতুন জেলা ঘোষণা করে, ৭ টি সংসদীয় আসন নিয়ে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিভাগ প্রতিষ্ঠা করুন। ৭ টি জেলা করে রাঙ্গামাটিকে বিভাগীয় শহর করে প্রশাসনিক কার্যক্রম চালালে পার্বত্য অঞ্চলের উন্নয়ন আরো বেশী ত্বরান্তি হবে। বর্তমানে পুরাতন পার্বত্য চট্টগ্রাম জেলাকে তিনটি জেলা যথা রাঙ্গামাটি, বান্দরবান ও খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা রূপান্তরিত করে প্রশাসনিক কর্মকান্ড চালানো হচ্ছে।

তিন পার্বত্য জেলায় তিনটি সংসদীয় আসন রয়েছে। তিন পার্বত্য জেলার একেকটির দুরত্ব অনেক বেশী। তিন পার্বত্য জেলা বাংলাদেশের এক দশমাংশ। এতে করে যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন অশানুরুপ না হওয়াতে জনগনে সাথে সম্পর্কের অনেক ব্যাঘাত ঘটেছে। একমাত্র যোগাযোগ ব্যবস্থার ব্যাপক উন্নয়ন করা যায় তাহলে জনগনের সাথে সম্পর্ক আরও ঘনিষ্ট হয়ে উঠবে।

বর্তমানে যে তিনটি জেলা রয়েছে তাকে ভাগ করে খাগড়াছড়ির রামগড়, রাঙ্গামাটির বাঘাইছড়ি, কাপ্তাই, বান্দরবানের লামাকে জেলা ঘোষণা করে রাঙ্গামাটিতে বিভাগীয় সদর দপ্তর স্থাপন করা হয় তাহলে অনেক প্রশাসনিক জটিলতা কমে যাবে। আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকালী বাহিনী বৃদ্ধি করা হবে। তাহলে শান্তি শৃঙ্খলা অনেক উন্নতি হবে।

সাথে সাথে তিনটি সংসদীয় আসনের জায়গায় ৭ টি জেলাকে ৭ টি সংসদীয় আসন ঘোষনা করা হয় তাহলে সংরক্ষিত মহিলা আসনও বৃদ্ধি পাবে। রামগড় মহকুমা ছিলো, তারপরেও খাগড়াছড়িতে জেলা সদর দপ্তর স্থাপন করা হয়েছে। লামাও মহকুমা ছিল।

কাপ্তাই এ জলবিদ্যুৎ প্রকল। এবং এশিয়ার বিখ্যাত কাগজ কল কর্ণফুলী পেপার মিলের কারণে গুরুত্ব অত্যন্ত বেশী ছিলো।

ভৌগলিক কারণে তিন পার্বত্য জেলা অনেকটা অনুন্নত ছিল। বর্তমানে অনেক উন্নয়ন কর্মকান্ড করা হলেও প্রয়োজনের তুলনায় অত্যন্ত নগন্য। এর মধ্য থেকে আঞ্চলিক দল গুলোকে চাঁদা দিতে গিয়ে অর্ধেকের বেশী অপব্যয় করা হচ্ছে। এই টাকা নিয়ে তারা অস্ত্র কিনে প্রশাসনের ও জনগনের বিরুদ্ধে ব্যবহার করছে আর বাইরে গিয়ে ঘরবাড়ী বানাচ্ছে কিন্তু জনগনের কোন কাজে লাগছে না।

সব দিক বিবেচনা করে আরও নতুন ৪ টি জেলা ৪ টি সংসদীয় আসন এবং পার্বত্য চট্টগ্রাম বিভাগ প্রতিষ্ঠা করা গেলে অনেক কাজে লাগবে। অহেতুক কোটি কোটি টাকা খরচ না করে সঠিক ভবে খরচ করলে ভাল ফল পাওয়া যাবে। বান্দরবান এবং খাগড়াছড়িতে বিশ্ব বিদ্যালয়, বান্দরবানে মেডিকেল কলেজ এবং খাগড়াছড়িতে কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপন করা অত্যন্ত জরুরী।

বান্দরবানে বীর বাহাদুর এমপির প্রতিষ্ঠিত বান্দরবান বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্যক্রম জোরদার করা হলেও দ্রুত উন্নয়ন হবে। এমনিতে বান্দরবান এবং অন্য ২ জেলার চাইতে অনেক এগিয়ে আছে উন্নয়নের কমতি নেই।

সূত্র: গিরিদর্পন