দীঘিনালায় কার্বারীসহ ৩জন নিখোঁজ না অপহরণ ?

মো. আল আমিন, দীঘিনালা: খাগড়াছড়ির দীঘিনালায় এক পাড়া থেকে কার্বারীসহ তিনজন নিখোঁজ রয়েছেন। বৃহষ্পতিবার দুপুরের পর থেকে এরা নিখোঁজ হন। শুক্রবার বিকাল পর্

লক্ষীছড়ি কালী মন্দিরের পূজা মণ্ডপ পরিদর্শন করেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান
বঙ্গবন্ধুর জন্ম শতবার্ষিকী উপলক্ষে খাগড়াছড়ি জেলা পরিষদের উদ্যোগে বৃক্ষ রোপন
খাগড়াছড়ি পৌর নির্বাচনে মেয়র পদে বিএনপির দলীয় মনোনয়ন পেলেন ইব্রাহীম খলিল

মো. আল আমিন, দীঘিনালা: খাগড়াছড়ির দীঘিনালায় এক পাড়া থেকে কার্বারীসহ তিনজন নিখোঁজ রয়েছেন। বৃহষ্পতিবার দুপুরের পর থেকে এরা নিখোঁজ হন। শুক্রবার বিকাল পর্যন্ত কারো খোঁজ পাওয়া যায়নি।

তিন জনের মধ্যে একজনকে নিজেদের সংগঠনের সদস্য জানিয়ে জেএসএস দাবী করেছে তাদেরকে ইউপিডিএফ’র লোকেরা অপহরণ করে নিয়ে গেছে। এ বিষয়ে ইউপিডিএফ জেলা শাখার সংগঠক মাইকেল চাকমা জানিয়েছেন, এরকম অপরহন ঘটনার সংবাদ তাদের জানা নেই। নির্বাচনকে সামনে রেখে পরিস্থিতি ঘোলাটে করার জন্য পরিকল্পিতভাবে জেএসএস (এমএন লারমা) মিথ্যা অপবাদ দিচ্ছে। তবে বিষয়টি কারো পরিবারের পক্ষ থেকে পুলিশকে জানানো হয়নি বলে দাবী করেছেন দীঘিনালা থানার অফিসার ইনচার্জ উত্তম চন্দ্র দেব।

নিখোঁজ ব্যাক্তিরা হলেন, উপজেলা সদরের অদুরে দীঘিনালা ইউনিয়নের নারিকেল বাগান গ্রামের টুক্কু কার্বারী পাড়ার কার্বারী (পাড়া প্রধান) প্রিয়তম চাকমা (৪৮), দয়াল কুমার চাকমা (৫০) এবং ভদ্রসেন চাকমা (৬৫)।

টুক্কু কার্বারী পাড়ায় গিয়ে দেখা যায়, সকলের চোখেমুখে আতংকের ছাপ। দয়াল কুমার চাকমার স্ত্রী কোহেলী চাকমা জানান, বৃহষ্পতিবার বিকালে পাবলাখালি বিলে গরু চড়াতে গিয়েছিলেন তাঁর স্বামি। এর পর আর ফিড়ে আসেননি, তখন থেকে তাঁর মোবাইল ফোনও বন্ধ রয়েছে।

প্রিয়তম কার্বারীর স্ত্রী মনসোনা চাকমা জানান, বৃহষ্পতিবার দুপুর ১২টার দিকে কার্বারী তাঁকে জানিয়েছিলেন স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মোবাইল ফোনে কার্বারীকে ডেকেছেন। চেয়ারম্যানের সাথে দেখা করার কথা বলে তখনি তিনি বাড়ি থেকে বেরিয়ে যান। এর পর কার্বারী আর বাড়ি ফিরেননি এবং তার ব্যাবহৃত মোবাইল ফোনও বন্ধ রয়েছে।