খাগড়াছড়িখাগড়াছড়ি সংবাদদীঘিনালাপাহাড়ের সংবাদশিরোনামস্লাইড নিউজ

দীঘিনালায় হত্যা মামলার আসামী গ্রেফতারের প্রতিবাদে সড়ক অবরোধ

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি: খাগড়াছড়ির দীঘিনালায় হত্যা মামলার এক পলাতক আসামিকে  গ্রেফতারের প্রতিবাদে  জেএসএস সংস্কার গ্রুপের কর্মীরা বেশ কয়েকঘন্টা সড়ক অবরোধ করে রাখে বলে জানা গেছে। দীঘিনালা থানা পুলিশ পলাতক আসামী রবেন্দ্র ত্রিপুরা ওরফে শান্ত(৩২) কে আটত করলে এ অবরোধ সৃষ্টি করে। আটক শান্ত জেলার পানছড়ি উপজেলার উল্টাছড়ির পুদ্যানীছড় গ্রামের পূণ্যাধন ত্রিপুরার ছেলে। তার বিরুদ্ধে খাগড়ছড়ি সদর থানায় হত্যা মামলা রয়েছে।

 ১ সেপ্টেম্বর শনিবার দুপুরে উপজেলার লারমা স্কোয়ার থেকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ আসামি শান্তকে গ্রেফতার করে। সে দীঘিনালা উপজেলার জেএসএস-এমএন লারমা পক্ষের যুব সমিতির কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি। এ ব্যাপারে দীঘিনালা থানার অফিসার ইনচার্জ আবদুস সামাদ জানান, আটক রবেন্দ্র ত্রিপুরা ওরফে শান্ত খাগড়ছড়ি সদর থানার একটি হত্যা মামলার পলাতক আসামি, এবং দীঘিনালা উপজেলার নয়মাইল এলাকার আলোচিত কৃত্তিকা ত্রিপুরা হত্যা মামলার সন্দিগ্ধ আসামি। কৃত্তিকা ত্রিপুরা ধর্ষণ ও হত্যা ঘটনার দিন সে ওই নয়মাইল এলাকায় চাঁদা কালেক্টরের দায়িত্বে নিয়োজিত ছিলো।

এদিকে রবেন্দ্র ত্রিপুরা ওরফে শান্ত আটকের প্রতিবাদে এবং নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল   করেছে দীঘিনালা উপজেলার জেএসএস-এমএন লারমা পক্ষ। বিক্ষোভ মিছিলটি উপজেলার লারমা স্কোয়ার থেকে শুরু হয়ে হলুদ চত্বরে গিয়ে সমাবেশে মিলিত হয়। সমাবেশে উপজেলা জনসংহতি সমিতির সহ-সভাপতি লোচন দেওয়ানের সভাপতিত্বে , জনসংহতি সমিতির দীঘিনালা উপজেলা সদস্য সমির চাকমা, কেন্দ্রীয় যুব সমিতির সহ-সভাপতি জ্ঞান চাকমা বক্তব্য রাখেন।

সমাবেশে আটক রবেন্দ্র ত্রিপুরা ওরফে শান্ত’র নিঃশর্ত মুক্তিসহ দীঘিনালা থানার অফিসার ইনচার্জ আবদুস সামাদ প্রত্যাহারের দাবি জানানো হয়। এসময় দুই দফা দাবি না মানা পর্যন্ত অনির্দিষ্টকালের জন্য সড়ক অবরোধ কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়। পরে প্রায় ৪ ঘন্টা পর নিরাপত্তাবাহিনী ঘটনাস্থলের পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে।