দীঘিনালা ধর্ষণের পর হত্যা: প্রতিবাদে পিসিপির বিক্ষোভ, প্রশাসনের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি শান্ত

স্টাফ রিপোর্টার: খাগড়াছড়ির দীঘিনালায় ধর্ষণের পর ৫ম শ্রেণির  স্কুল ছাত্রীকে হত্যা করা হয়েছে। গত শনিবার দুপুরে উপজেলার মেরুং ইউনিয়নের নয়মাইল (ত্রিপুরা অ

ইউপিডিএফ ‘র প্রেরিত সংবাদের সংশোধনী
চার বীর কন্যাদের সাথে স্কুল  ছাত্র-ছাত্রীদের হয়ে গেলো ব্যতিক্রমী  “মিট দ্যা প্রাইড” 
খাগড়াছড়িতে ৩হাজার ৭০০ লিটার তেল মজুদের দায়ে ভ্রাম্যমাণ আদালতের জরিমানা

স্টাফ রিপোর্টার: খাগড়াছড়ির দীঘিনালায় ধর্ষণের পর ৫ম শ্রেণির  স্কুল ছাত্রীকে হত্যা করা হয়েছে। গত শনিবার দুপুরে উপজেলার মেরুং ইউনিয়নের নয়মাইল (ত্রিপুরা অধ্যুষিত) এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহতের ছাত্রীর নামকৃত্তিকা ত্রিপুরা(১২)। সে উপজেলার মেরুং ইউনিয়নের নয় মাইল ত্রিপুরা গুচ্ছগ্রাম সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণীর ছাত্রী। ঘটনার পর পুলিশ ও এলাকাবাসী পাশের বাগান থেকে রাত সাড়ে দশটায় নিহতের লাশ উদ্ধার করেছে। এদিকে ঘটনার প্রতিবাদে এলাকাবাসী সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত রাস্তা চলাচল বন্ধ রাখে। পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, গত শনিবার দুপুরে বিদ্যালয়ে টিপিন পিরিয়ডে বাড়ি আসলে, সে আর বিদ্যালয়ে যায়নি। পরে তার মা অনুমতি ত্রিপুরা জুম থেকে কাজ শেষে বাড়ি ফিরে তাকে না পেয়ে অনেক খোজাখুজি করে। এক পর্যায়ে রাত সাড়ে ১০টায় পুলিশ পার্শবর্তী বাগান থেকে নিহতের লাশ উদ্ধার করে। এদিকে ঘটনার প্রতিবাদে এলাকাবাসী খাগড়ছড়ি-দীঘিনালা সড়কে বড় বড় গাছ কেটে রাস্তায় ফেলে সকল প্রকার যান চলাচল বন্ধ করে দেয়া।

এ ব্যাপারে কৃত্তিকা ত্রিপুরা জেঠা রতি মোহন ত্রিপুরা জানান জন্মের ৫ বছর পর তার বাবা মারা যায়। এব্যাপারে দীঘিনালা থানার এসআই মোঃ মোবারক হোসেন জানান, নিহত কৃত্তিকা ত্রিপুরা শরীরে হাতে পায়ে এবং গলায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। ধারনা করা হচ্ছে, ধর্ষণের পর হত্যা করা হয়েছে। ঘটনার পর খাগড়ছড়ির সাংসদ কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা, জেলা প্রশাসক মোঃ রাশেদুল ইসলাম, দীঘিনালা জোন অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্ণেল ফেরদৌস জিয়াউদ্দীন মাহমুদ, পুলিশ সুপার আলী আহম্মদ, দীঘিনালা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ শেখ শহিদুল ইসলাম, দীঘিনালা থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আবু সামাদ এবং খাগড়াছড়ি সদর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ শাহাদাৎ হোসেন টিটো ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।  এসময় কৃত্তিকা ত্রিপুরাকে ধর্ষণ ও হত্যায় জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির আশ্বাসে যান চলাচল উন্মুক্ত করে দেন।

এদিকে সকাল সাড়ে ১১ টায়  পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ দীঘিনালা কলেজ শাখার উদ্দ্যেগে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে। বিক্ষোভ মিছিলটি দীঘিনালা কলেজ থেকে বের করে উপজেলা প্রদক্ষিন করে পুনরায় ফিরে এসে কলেজের মোড়ে এক সংক্ষিপ্ত  সমাবেশ করে এতে পিসিপি‘র কলেজ শাখার সাধারন সম্পাদক রিংকু চাকমা‘র সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন পিসিপি‘র থানা শাখার সভাপতি মিরোজ ত্রিপুরা, পিসিপি‘র থানা শাখার সাধারন সম্পাদক অমল চাকমা, ত্রিপুরা স্টুডেন্ট ফোরাম সভাপতি অনিতা ত্রিপুরা প্রমুখ। সমাবেশে বক্তারা কৃত্তিকা ত্রিপুরা ধর্ষন ও হত্যাকারীদের গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবী করেন।

দীঘিনালা থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আবু সামাদ বলেন, নিহতের মা অনুমতি ত্রিপুরা বাদী হয়ে ৩/৪জনের অজ্ঞাত নামে নারী শিশু নির্যাতন ও হত্যা ধারায় মামলা দায়ের করেন। ঘটনায় এখন কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি।