পাহাড়ের সম্প্রীতি বিনষ্টে ওঁত পেতে থাকা চিহ্নিতদের আইনের হাতে তুলে দিন

স্টাফ রিপোর্টার: খাগড়াছড়ি জেলা উন্নয়ন কমিটির আহ্বায়ক ও জেলা আওয়ামলীগ নেতা মংসুই প্রু চৌধুরী অপু বলেছেন, পার্বত্য এলাকায় শান্তি-সম্প্রীতি এবং উন্নয়ন অগ

খাগড়াছড়িতে বিজয় দিবসে বিএনপির র‌্যালি
পানছড়িতে জেলা প্রশাসকের বিদায় অনুষ্টান
লক্ষ্মীছড়ি জোনের ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত

স্টাফ রিপোর্টার: খাগড়াছড়ি জেলা উন্নয়ন কমিটির আহ্বায়ক ও জেলা আওয়ামলীগ নেতা মংসুই প্রু চৌধুরী অপু বলেছেন, পার্বত্য এলাকায় শান্তি-সম্প্রীতি এবং উন্নয়ন অগ্রগতিতে সকলের সহযোগীতা প্রয়োজন। প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত ‘রুপকল্প-২০৪১’-এর সাথে পাহাড়ের মানুষকে শামিল হতে এখন থেকেই সরকারি সকল বিভাগ কাজ শুরু করেছে। বিদ্যুৎ-তথ্য প্রযুক্তি- যোগাযোগ অবকাঠামো-শিক্ষা এবং চিকিৎসার মান বৃদ্ধির মাধ্যমে জীবনমান উন্নয়নের কাঙ্খিত লক্ষে পৌঁছানো সম্ভব।

বৃহস্পতিবার বিকেলে ৩০ লক্ষ টাকা খাগড়াছড়ির দুটি বৌদ্ধ বিহারের নবনির্মিত দেশনাঘর ও সীমানা প্রাচীরসহ অন্যান্য কাজের উদ্বোধনকালে জেলা পরিষদ সদস্য মংসুই প্রু চৌধুরী অপু এসব কথা বলেন।

তিনি অভিযোগ করে বলেন, পার্বত্য এলাকায় নির্বাচন আসার আগে শান্তি, সম্প্রীতি উন্নয়ন বাধাগ্রস্ত করার জন্য আঞ্চলিক দলের নাম ব্যবহার করে কিছু সংখ্যক দুষ্ট লোক বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির অপচেষ্টা চালায়। ওঁত পেতে থাকা এসব লোকদের চিহ্নিত করে আইনের হাতে তুলে দিতে হবে। শান্তি চুক্তির পর থেকে প্রধানমন্ত্রী আমাদের যে উন্নয়নের স্বপ্ন দেখাচ্ছেন সে স্বপ্নের পথ ধরে আগামী নির্বাচনে আবারো কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপিকে নৌকা প্রতীকে নির্বাচিত করা আহ্বান জানান তিনি।

এই সময় অপু চৌধুরীর সাথে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ত্রিপুরা কল্যাণ সংসদ-এর কেন্দ্রীয় সা: সম্পাদক অনন্ত ত্রিপুরা, সাবেক উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান বাশরী মারমা, আওয়ামীলীগ নেতা নুরুল আজম, জেলা আওয়ামী যুবলীগের সহ-সভাপতি মেহেদী হাসান হেলাল, যুগ্ম-সাধারণ মকুল চাকমা এবং উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম-সম্পাদক রুতান চৌধূরী।