পাহাড় ধস সম্পর্কে সচেতনা বৃদ্ধির লক্ষ্যে গুইমারা’য় র‌্যালি

স্টাফ রিপোর্টার: পাহাড় ধস সম্পর্কে সতেচনতা বৃদ্ধির ও আগামী সতর্কতা মূলক কার্যক্রম সম্পর্কে অবহিত করণের লক্ষ্যে গুইমারা উপজেলায় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও

মানিকছড়িতে ‘গ্রাম ডাক্তার কল্যাণ সোসাইটি’র অভিষেক
মহালছড়িতে ক্রীড়া সামগ্রী বিতরণ
রামগড়ে ধর্ষকের মৃত্যুদন্ড আইন চেয়ে মানববন্ধন

স্টাফ রিপোর্টার: পাহাড় ধস সম্পর্কে সতেচনতা বৃদ্ধির ও আগামী সতর্কতা মূলক কার্যক্রম সম্পর্কে অবহিত করণের লক্ষ্যে গুইমারা উপজেলায় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রনালয়ের আয়োজনে, গুইমারা উপজেলা প্রশাসনের সহযোগীতায় “পাহাড় ধ্বস সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধি ও আগাম সতর্কতামুলক কার্যক্রম সম্পর্কিত র‌্যালী ও আলোচনা সভা” সোমবার সকালে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

গুইমারা উপজেলা নির্বাহী অফিসার পঙ্কজ বড়ুয়ার সভাপতিত্বে ২৩ এপ্রিল সকালে  এক আলোচনা সভা উপজেলা নির্বাহী অফিসারের অস্থায়ী কার্যালয় মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়। সভায় গুইমারা উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মোঃ জাহাঙ্গীর আলম, সাধারণ সম্পাদক ও গুইমারা সদর ইউপি চেয়ারম্যান মেমং মারমা, হাফছড়ি ইউপি চেয়ারম্যান চাইথোয়াই চৌধুরী, উপজেলা প্রকৌশলী মোঃ শাহজাহান, গুইমারা উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার ¤্রাসাথোয়াই মগ, গুইমারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(তদন্ত)মোঃ মোঃ সফিকুল ইসলাম গুইমারা উচ্চ বিদ্যালয় প্রধান শিক্ষক সুশীল রঞ্জন পাল ছাড়া এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ, জনপ্রতিধি বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছাত্র/ছাত্রীরা উপস্থিত ছিলেন। সভায় পাহাড় ধস সম্পর্কে জনগণের সতেচনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে প্রামান্য চিত্র প্রদর্শন করা হয়। সভায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পঙ্কজ বড়ুয়া জানান, পাহাড় ধস বর্তমানে দেশে বিশেষ করে পার্বত্য চট্টগ্রামে বিগত সাত-আট বছরের মধ্যে ভয়াবহ আকারে ধারন করেছে এবং বহু মানুষ হতাহত হয়েছে। এব্যাপারে আমাদের সবাইকে সচেতন হওয়া প্রয়োজন বলে মন্তব্য করেন তিনি।

সভায় বক্তারা বলেন, নির্বিচারে পাহাড় কাটা, পাহাড়ের পার্শে বা পাহাড় কেটে পাহাড়ের তলদেশে বসতি স্থাপন, নির্বিচারে বনাঞ্চল ধংস করা, জুম চাষের নামে পাহাড়ে আগুন দিয়ে বনায়ন ধংস করা, ইত্যাদি পাহাড় ধসের অন্যতম কারন। এসময় তিনি পাহাড় ধসের কারণ ও তার প্রতিকার, পাহাড় ধস পরর্বতী পরিস্থিতিতে করনীয় সম্পর্কে আলোচনা করা হয়। এর আগে গুইমারা উপজেলা নির্বাহী অফিসার পঙ্কজ বড়ুয়া নেতৃত্বে এক র‌্যালি বের করা হয়। র‌্যালীটি উপজেলার প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে উপজেলা পরিষদ চত্তরে এসে শেষ হয়।