পিতা-কন্যার এক সঙ্গে এসএসসি পাস

পিতা-কন্যার এক সঙ্গে এসএসসি পাস

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি: খাগড়াছড়ি জেলার পানছড়ির উল্টাছড়ি ইউনিয়নের জিয়ানগর গ্রামের বাবা-মেয়ের একসঙ্গে এসএসসি পাস করায় এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। ২৯ নভে

মানিকছড়ি আওয়ামীলীগের উদ্যোগে ইফতার মাহফিল
আন্তর্জাতিক দুর্নীতি প্রতিরোধ দিবস উদযাপনে মানিকছড়িতে মানববন্ধন ও আলোচনা সভা
খাগড়াছড়ির সকল পর্যটন কেন্দ্র বন্ধ ঘোষণা

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি: খাগড়াছড়ি জেলার পানছড়ির উল্টাছড়ি ইউনিয়নের জিয়ানগর গ্রামের বাবা-মেয়ের একসঙ্গে এসএসসি পাস করায় এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। ২৯ নভেম্বর এসএসসি পরীক্ষার প্রকাশিত ফলাফলে এ তথ্য জানা গেছে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, শাহজাহানের পেশাগত পরিচয় ভাড়ায় চালিত মোটরসাইকেলের চালক। পরিবারে তার এক মেয়ে ও তিন ছেলে রয়েছে। বড় মেয়ে সুমাইয়া বিনতে শাহজাহান (শ্রাবন্তি) এবার এসএসসি পরীক্ষায় উল্টাছড়ি উচ্চ বিদ্যালয় থেকে জিপিএ ৪.৬১ পেয়ে পাস করেছে। একই সঙ্গে সেও উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় আওতাধীন পানছড়ি বাজার উচ্চ বিদ্যালয় থেকে জিপিএ ৩.০৯ পেয়ে এসএসসি পাস করেছে। তিন ছেলে অভি সপ্তম শ্রেণি, আমিন দ্বিতীয় শ্রেণি ও আলিম প্রথম শ্রেণিতে পড়াশুনা করছে।

সোমবার এসএসসির ফল প্রকাশ হলেও বাবা-মেয়ের একসঙ্গে পাসের বিষয়টি এলাকায় জানাজানি হয়নি। এরপর মঙ্গলবার বাবা-মেয়ে পাসের খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে অনেকে মিষ্টি নিয়ে তাদের অভিনন্দন জানাতে আসেন।

এ বিষয়ে সুমাইয়া বিনতে শাহজাহান শ্রাবন্তি জানায়, আমার বাবা আমার আদর্শ। বাবা আমাকে যেমন লেখাপড়ার জন্য অনুপ্রাণিত করেছে তেমনি সার্টিফিকেট পেতে পরীক্ষা দিয়ে পাস করেছেন।বর্তমান সময়ে অভিজ্ঞতার পাশাপাশি সার্টিফিকেটও (সনদ) থাকতে হয়। আমি ও আমাদের পরিবারের সবাই বাবার এই সফলতায় আনন্দিত।

মেয়ের সঙ্গে এসএসসি পাসের অনুভূতি জানিয়ে মো. শাহজাহান মিয়া বলেন, আমি সংসারের অভাব অনটনে জীবন জীবিকার তাগিদে এসএসসি পরীক্ষা দিতে পারি নাই। নানা পেশায় জীবিকা নির্বাহ করতে গিয়ে এক সময় ভূমি পরিমাপ শিখি। অন্যের ভূমি মেপে হিসাব করে দেয়ার জন্য প্রায়ই ডাক পড়ে। সার্টিফিকেট হলে ভূমি মাপার আমিন প্রশিক্ষণ নিতে পারি । তাই পরীক্ষা দিয়েছি। আগামীতে আমিনশিপ পরীক্ষা দেবো আশা করছি। স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) সদস্য আবুল হাসেম হাসু বলেন, বাবা-মেয়ের এসএসসি পাসের খবরে তাকে অভিনন্দন জানাতে গেছি। প্রকৃতপক্ষে শিক্ষার কোনো বয়স নাই। শাহজাহান একজন পরিশ্রমী মানুষ। আমি তাদের সফলতা কামনা করছি।

COMMENTS