ফটিকছড়িতে আ’লীগের বিদ্রোহী প্রার্থীর কর্মীর উপর হামলা

ফটিকছড়ি প্রতিনিধি: ফটিকছড়িতে সন্ত্রাসী হামলায় আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী এটিএম পেয়ারুল ইসলামের ৪/৫ জন কর্মী আহত হয়েছে। রোববার সকালে উপজেলার মো.তকির

রাঙ্গুনিয়ার নুরুল উলুম মাদ্রাসায় দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত
চট্টগ্রাম-২ (ফটিকছড়ি) আসনে মনোনয়ন পেলেন যারা
মাইজভান্ডারী শরাফত হলো সাম্য-ভ্রাতৃত্ব-ঐক্যের -ডা. সৈয়দ দিদারুল হক মাইজভান্ডারী

ফটিকছড়ি প্রতিনিধি: ফটিকছড়িতে সন্ত্রাসী হামলায় আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী এটিএম পেয়ারুল ইসলামের ৪/৫ জন কর্মী আহত হয়েছে। রোববার সকালে উপজেলার মো.তকিরহাট বাজারে এ ঘটনা ঘটে। হামলায় আহতরা হলেন জাফত নগর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক কাজী মোহাম্মদ সেলিম উদ্দিন (৪০), হাকিম পারভেজ (২৪),ও মোহাম্মদ সেলিম (২৭)। বাকীদের নাম পরিচয় জানা যায়নি।

হামলায় আহত সেলিম জানান, সকালে স্থানীয় ছাত্রলীগ যুবলীগ নেতাকর্মীরা বিজয় দিবস উপলক্ষে স্মৃতিসৌধে ফুল দিয়ে তোকির হাট বাজারে এসে জড়ো হয়। সেখানে তারা আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী এটিএম পেয়ারুল ইসলামের নির্বাচনী প্রচারনার পোস্টার নিয়ে নির্বাচনী প্রচার কাজে যাওয়ার প্রস্তুতি নেন।

এসময় ল্যাংড়া সাহেদ তাঁর ভাই দিদারের নেতৃত্বে ১৫/১৬ জন সন্ত্রাসী তাদের উপর চড়াও হয়। সন্ত্রাসী দিদার এসময় পেয়ারুল ইসলামের পোস্টার না লাগাতে এবং পেয়ারুর পক্ষে কাজ না করতে তাদেরকে বাধা দেয়। এসময় তারা পেয়ারুল ইসলামের কর্মীদেরকে এলোপাতাড়ি মারধর করতে থাকে। সন্ত্রাসীদের হামলায় জাফতনগর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি সেলিমসহ ৪/৫ জন আহত হয়। পরে স্থানীয়রা উদ্ধার করে তাদেরকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করায় ।

ফটিকছড়ি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে দায়িত্বরত চিকিৎসক ডা. মোহাম্মদ রাশেদুল আলম বলেন হামলায় আহত দু’জনকে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।
এ ব্যাপারে উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক নাজিম উদ্দিন মুহুরী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন,আমাদের নেতা কর্মীর উপর পরিকল্পিতভাবে হামলা করা হয়েছে। নির্বাচনী প্রচারনা বাধাগ্রস্থ করতে হামলা চালানো হয়েছে। এ বিষয়ে মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানান তিনি।