• May 22, 2024

ফটিকছড়িতে সেনা ও প্রবাসী পরিবারকে মিথ্যা মামলায় হয়রানির অভিযোগ

ফটিকছড়ি প্রতিনিধি: ফটিকছড়ির ভুজপুরে এক সেনা সদস্য ও প্রবাসীর পরিবারকে মিথ্যা মামলায় হয়রানির অভিযোগ উঠেছে। স্থানীয় এক রাবার শ্রমিক নেতার দাবীকৃত চাঁদা না দেয়ায় তাঁর ইন্দনে প্রভাবশালী মহল উক্ত পরিবারের প্রায় ২৫ জন সদস্যের নামে হামলা ও লুটপাটের মামলা করেছে বলে অভিযোগে প্রকাশ।

সোমবার চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন সাংবাদিক ইউনিয়নে এক সংবাদ সম্মেলনে এমন অভিযোগ করেন ভুক্তভোগি পরিবারের সদস্যরা। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন হয়রানির শিকার ভুক্তভোগি পরিবারের প্রবাসী সদস্য মো.আলাউদ্দিন ।

লিখিত বক্তব্যে আলাউদ্দিন বলেন তাঁর নানার উত্তরাধিকার সুত্রে প্রাপ্ত ৬০/৭০ বছরের পুরনো ভিটায় বসবাস করে আসছিলেন তাঁরা। তাঁদের বসত ভিটাটি রিজার্ভ ভুমি দাবী করে সেখানে বসবাস করতে হলে এনাম ও কামাল নামে দুই ব্যক্তির মাধ্যমে আলাউদ্দিনের পিতার নিকট ৫ লাখ টাকা চাঁদা দাবী করেন উক্ত শ্রমিক নেতা। দীর্ঘদিন ধরে নানা হুমকি ধমকির পর প্রবাসী আলাউদ্দিনের পিতার কাছ থেকে ১ লাখ টাকা নিয়ে যায়। বাকী টাকা না দেয়ায় উক্ত শ্রমিক নেতা প্রবাসী ও সেনা সদস্যের পরিবারকে জোরপুর্বক উচ্ছেদের একাধিকবার প্রচেষ্টা চালায়। সর্বশেষ গত ২৭ মে হঠাৎ করে দাঁতমারা রাবার বাগান শ্রমিক ইউনিয়নের স্বঘোষিত জনৈক সভাপতি একাধিক মামলার আসামী কিছু ভারাটে সন্ত্রাসী নিয়ে প্রবাসীর বাড়ীতে অতর্কিত হামলা ভাংচুর করে। ভারাটে সন্ত্রাসীরা প্রবাসী আলাউদ্দিনের মা বোন, ভাই, বাবাসহ পরিবারের সদস্যদেরকে এলোপাতাড়ি মারধর করে থাকে। এসময় তারা ঘরের দেয়াল ও আসবাব পত্রসহ মুল্যবান জিনিসপত্র ভাঙচুর করে। বাড়ীর নারীদেরকেও শ্লীলতাহানীর প্রচেষ্টা চালায় তারা । এর পর উল্টো আলাউদ্দিন ও তাঁর ভাই সেনা সদস্য গিয়াস উদ্দিনসহ ২৫ জনের নামে ভুজপুর থানায় হামলা ও লুটপাটের অভিযোগে মামলা দায়ের করেন।

দাঁতমারা রাবার বাগানের ম্যানেজার নন্দী গোপাল রায় মামলার বাদী হলেও ঘটনার সময় তিনি ঘটনাস্থলের ধারে কাছেও ছিলেননা। অথচ এ মামলার সাক্ষীদের সকলেই সরকারী রাবার বাগানের ভুমিতে জবর দখলকারী । এমনকি উক্ত শ্রমিক নেতার প্রাসাদতুল্য বাড়িটিও সরকারী বনভূমির অংশ।

বর্তমানে উক্ত মিথ্যা মামলার কারণে প্রবাসীর পরিবারসহ মামলার ২৫ আসামীর পরিবারের সকল সদস্যই এলাকা ছাড়া। এলাকায় রীতিমত পুলিশি আতংক বিরাজ করছে। আলাউদ্দিন বলেন তিনি একজন প্রবাসী,তাঁর বাবা স্থানীয় ব্যবসায়ী এবং ছোট ভাই বাংলাদেশ সেনাবাহিনীতে দেশ মাতৃকা রক্ষার কাজে নিয়োজিত।

তিনি এ ঘটনার সুষ্ঠ তদন্ত করে দোষিদের বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ গ্রহন করার জন্য প্রধানমন্ত্রীসহ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী ও প্রশাসনের সয়শ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের প্রতি জোর দাবী জানান। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন প্রবাসী আলাউদ্দিনের মা ফাতেমা বেগম, মামা আবু আহমদ হাবীব, বোন সাবরিনা মমতাজ,জেসমিন আকতার প্রমুখ।

পাহাড়ের আলো

https://pahareralo.com

সর্বাধিক জনপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল। সর্বশেষ সংবাদ সবার আগে জানতে চোখ রাখুন পাহাড়ের আলোতে।

Related post