ফটিকছড়ির চা বাগানে মার্মা তরুনীকে ধর্ষনের অভিযোগে মামলা

ফটিকছড়ি প্রতিনিধি: ফটিকছড়ি মাইসাছলা রক্তছড়ি পাড়া কাঞ্চননগর কর্নফুলি চা বাগানের এক মারমা তারুনীকে ধর্ষনের অভিযোগ ওঠেছে। ৩০আগস্ট বেলা ৩টার দিকে বাগানে ক

নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য মূল্যের উর্ধ্বগতির প্রতিবাদে খাগড়াছড়িতে বিএনপি বিক্ষোভ সমাবেশ
মানিকছড়ির ইজারাকৃত বালু মহাল বিলুপ্ত ঘোষণা করেছে জেলা প্রশাসন
ফ্রান্সে হযরত মুহাম্মদ সা. অবমাননা করার প্রতিবাদে খাগড়াছড়িতে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ

ফটিকছড়ি প্রতিনিধি: ফটিকছড়ি মাইসাছলা রক্তছড়ি পাড়া কাঞ্চননগর কর্নফুলি চা বাগানের এক মারমা তারুনীকে ধর্ষনের অভিযোগ ওঠেছে। ৩০আগস্ট বেলা ৩টার দিকে বাগানে কাজ করে ফেরার পথে এ ঘটনা ঘটে উল্লেখ করে ঘটনার একদিন পর রহস্যজনকভাবে ৩১ আগস্ট ফটিকছড়ি থানায় এ অভিযোগ করা হয়। তবে পুলিশ ঘটনাটি গুরুত্বের সাথে তদন্ত করছে বলে জানা গেছে।

জানা যায়, বটতলি এলাকার উসোচং মার্মার মেয়ে থৌয়াইমাচিম মার্মা(২৭), খাগড়াছড়ি রক্তছড়ি চা বাগানে কাজ করে বাড়ি ফেরার পথে ফটিকছড়ি কাঞ্চন নগর শেকুয়া পাড়া মোঃ আমির হোসেন এর ছেলে মোঃ আজম (৪০) মেয়েটিকে চা বাগানের ভিতরে নিয়ে যায় এবং জোর করে ধর্ষন করে বলে ফটিকছড়ি থানায় অভিযোগ দায়ের করে।

এ ব্যাপারে ফটিকছড়ি থানায় মামলা হয়েছে। ঘটনার প্রকৃত রহস্য উদঘাটন এবং আসামীকে ধরতে মাঠে নামে সেনাবাহিনী ও পুলিশ। পরে লক্ষ্মীছড়ি সেনা জোন, পুলিশ এবং কাঞ্চননগর চেয়ারম্যানের সহায়তায় আসামীকে গ্রেফতার করা করা হয়।

এ ঘটনার সূত্র ধরে কর্নফুলি চা বাগানের ম্যানেজার শফিক জানান, ৩০ আগসট ঘটনার দিন ধর্ষনের কোন অভিযোগ করেনি। একদিন পরে স্বামীসহ বক্তব্য পরিবর্তন করে রহস্যজনকভাবে মামলা করে। কারও প্ররোচনায় ও প্রভাবিত হয়ে মামলা করতে বাধ্য হয় বলে তিনি জানান। ফটিকছড়ি থানার পুলিশের এসআই দেলোয়ার হোসেন ভূইয়া সাংবাদিকদের বলেন, ধর্ষিতাকে পরীক্ষার জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজে পাঠানো হয়েছে।