বাংলাদেশ ঐক্য পার্টি’র মতবিনিময় সভা

বাংলাদেশ ঐক্য পার্টি’র মতবিনিময় সভা

মানিকছড়ি(খাগড়াছড়ি)প্রতিনিধি: নতুন ধারার রাজনৈতিক দল 'বাংলাদেশ ঐক্য পার্টি' দেশে সুস্থ রাজনীতি চর্চা ও মানুষের পুর্নাঙ্গ সাংবিধানিক অধিকার প্রতিষ্ঠা এব

দীঘিনালায় নিহত ৩ জনের ময়না তনন্ত সম্পন্ন, থানায় মামলা
রামগড়ে ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস পালিত
গুইমারাতে সেনাবাহিনীর অভিযানে অস্ত্র গুলি উদ্ধার
মানিকছড়ি(খাগড়াছড়ি)প্রতিনিধি: নতুন ধারার রাজনৈতিক দল ‘বাংলাদেশ ঐক্য পার্টি’ দেশে সুস্থ রাজনীতি চর্চা ও মানুষের পুর্নাঙ্গ সাংবিধানিক অধিকার প্রতিষ্ঠা এবং দেশের সংকটময় পরিস্থিতি থেকে উত্তরণের লক্ষ্য নিয়ে তৃণমূল গণজোয়ার সৃষ্টিতে সাংগঠনিক শক্তিবৃদ্ধির লক্ষে দলের আত্মপ্রকাশ জানিয়ে খাগড়াছড়ির মানিকছড়ি উপজেলায় সাংবাদিক ও স্থানীয়দের নিয়ে মতবিনিময় সভা অনুষ্টিত হয়েছে।
৪ মার্চ শনিবার সকাল ১১টায় উপজেলার দক্ষিণ কালাপানি ইস্পাহানি দাখিল মাদরাসার কক্ষে দলের ভাইস চেয়ারম্যান ও বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. আবদুল  করিমের সভাপতিত্বে অনুষ্টিত হয় মতবিনিময় সভা। এতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন, দলের  সাধারণ সম্পাদক রাজীব চক্রবর্তী। প্রধান অতিথি ছিলেন, দলের চেয়ারম্যান মুহাম্মদ  আবদুর রহীম চৌধুরী।  বক্তব্য রাখেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. আবুল বশর, বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুল হালিম ও গ্রাম সর্দার  শের খান বাহাদুর। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন, নিরেন্দ্র ত্রিপুরা, বিপল ত্রিপুরা, মো. আলা উদ্দিন প্রমূখ।
সংগঠনের চেয়ারম্যান মুহাম্মদ আবদুর রহীম চৌধুরী বলেন, দেশে সুস্থ রাজনীতির চর্চাই বাংলাদেশ ঐক্য পার্টির মূল থিম।  স্বাধীনতার ৫১ বছরেও দেশে শিক্ষাব্যবস্থা থেকে শুরু সকল ক্ষেত্রে অবনতি ঘটছে, রাজনীতিবিমূখ ৮৫% মানুষ আজ  সাংবিধানিক অধিকার হারা, উন্নয়নের ধামাঢোল দিয়ে আ’লীগ আর বিদেশীদের তোষামোদ করে বিএনপি ক্ষমতার যাওয়ার চেষ্টা করছেন।
তিনি আরও বলেন, একদল দীর্ঘদিন ক্ষমতায় থাকার কারণে দেশে দুর্নীতি বাড়ছে, পার্বত্য চট্টগ্রামে শকুনের চোখ পড়েছে। এসব দেশি-বিদেশি ষড়যন্ত্র ও সাংবিধানিক অধিকার হারা মানুষের শান্তি প্রতিষ্ঠায় ‘বাংলাদেশ ঐক্য পার্টি’র বিকল্প নেই। আমাদের দেশে সুস্থ রাজনীতি না থাকায় বিদেশিরা বাংলাদেশের ভূখন্ড নিয়ে দুঃস্বপ্ন দেখেছে। তাই মূলধারার বাইরে ৩য় পক্ষের রাজনৈতিক দলের আত্মপ্রকাশের তাগিদে  ২০২১ সালের ৫ফেব্রুয়ারী বাংলাদেশ ঐক্য পার্টির জন্ম। ইতোমধ্যে ১৭ জেলা থেকে সুস্থ চিন্তা চেতনার লোক নিয়ে দলের কেন্দ্রীয় কমিটি গঠিত হয়েছে। আ’লীগ-বিএনপি দেশের মানুষের মাঝে বিভেদ সৃষ্টি না করে,দেশের কল্যাণে রাজনীতি করলে ঐক্য পার্টি সৃষ্টির প্রয়োজন হতো না।