খাগড়াছড়িখাগড়াছড়ি সংবাদপাহাড়ের সংবাদমহালছড়িস্লাইড নিউজ

মহালছড়িতে ছাত্রলীগ এর প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত

মহালছড়ি প্রতিনিধি: খাগড়াছড়ির মহালছড়িতে বর্ণাঢ্য আয়োজনে উদযাপিত হয়েছে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ এর ৭০তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী। ৪ জানুয়ারী বৃহস্পতিবার বিকাল সাড়ে ৩ টায় বিশাল এক আনন্দ র‌্যালী উপজেলা সদরের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে জাতীয় পতাকা ও দলীয় পতাকা উত্তোলন এবং কেক কাটার মাধ্যমে মহালছড়ি সরকারী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদ্বোধন করেন, খাগড়াছড়ি জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও খাগড়াছড়ি জেলা আওয়ামীলীগ এর সিনিয়র সহসভাপতি কংজরী চৌধুরী।

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন, খাগড়াছড়ি জেলা পরিষদ এর সদস্য জুয়েল চাকমা, খাগড়াছড়ি জেলা আওয়ামীলীগ এর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক এড সুপাল চাকমা, মহালছড়ি উপজেলা আওয়ামীলীগ এর সভাপতি নিলোৎপল খীসা, সাধারণ সম্পাদক রতন কুমার শীল, জেলা ছাত্রলীগ এর সভাপতি টিকো চাকমা, মহালছড়ি উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি জিয়াউর রহমান জিয়া, উপজেলা ক্রীড়া সম্পাদক রোকন মিয়া, গুইমারা উপজেলা ছাত্রলীগ এর সভাপতি মো: সাগর ও উপজেলা আওয়ামীলীগ এবং সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদ্বোধন শেষে মহালছড়ি উপজেলা ছাত্রলীগ এর সভাপতি জিয়াউর রহমান জিয়ার সভাপতিত্বে এক ছাত্র সমাবেশ ও  আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন,  বর্তমান সরকারের প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনার সুদৃষ্টি আছে বলেই, পার্বত্য চট্টগ্রামে অভাবনীয় উন্নয়ন হয়েছে। এক সময় পার্বত্যচট্টগ্রাম অবরুদ্ধ ছিল। সন্ধ্যা হতে না হতেই বাড়িই বাইরে যাওয়া যেতনা, ইচ্ছেমতো কথা বলা যেতনা,  কিন্তু এখন আর তা নেই। এখন দিনে কিংবা রাতে যখন খুশি তখন যেখানে ইচ্ছে সেখানে যাওয়া যায়। তখনকার সময়ে পার্বত্যচট্টগ্রাম মানেই একটা আতঙ্কের ও বিপদজনক জায়গা বলে, মনে হতো। অথচ সেই পার্বত্য চট্টগ্রাম এখন দৃষ্টিনন্দিত একটি জায়গার নাম। দেশ ও বিদেশ থেকে প্রতিদিন শত শত পর্যটক এখন পার্বত্যচট্টগ্রামের সৌন্দর্য্য উপভোগ করতে আসে। সবকিছু সম্ভব হয়েছে একমাত্র বর্তমান সরকার প্রধান শেখ হাসিনার সুক্ষ্ম বুদ্ধিমত্তার কারণে।

উন্নয়নের ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে আগামী জাতীয় নির্বাচনে আবারো আওয়ামীলীগ সরকারকে ভোট দেওয়ার আহবান জানান।  আলোচনা শেষে গরীব ও দুস্থ পরিবারের মাঝে সেলাই মেশিন ও কম্বল বিতরণ করা হয় এবং স্থানীয় ও চট্টগ্রাম থেকে আগত শিল্পীদের নিয়েএক সাংষ্কৃতিক সন্ধ্যার আয়োজন করা হয়।